গতিতে যেমন স্টাইলেও তেমন

আসাদুজ্জামান
ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫৭

যানজটের নগরে গতিশীল বাহন মোটরসাইকেল। বাজারে আসছে নিত্যনতুন বাইক। যেগুলো যেমন শক্তিশালী, তেমনি স্টাইলিস্ট। ভারত ও বাংলাদেশের বাজারে ঢু মেরে এমন চারটি বাইকের খোঁজ রইল এই প্রতিবেদনে। 

দৃষ্টিনন্দন
বিশ্বসেরা স্টাইলিস্ট বাইকের তকমা পেয়েছে ডুকাতি ডিয়াভেল। ক্রুজার স্টাইলের এই মোটরসাইকেলে রয়েছে দুর্দান্ত আবেদন আর ‘মাসকিউলার ডিজাইন।’ এবার ‘সেরার সেরা’ ডিজাইন অ্যাওয়ার্ড জিতে নিল এই মোটরসাইকেল। এ জন্য একে লড়াই করতে হয়েছে সাড়ে পাঁচ হাজার মোটরসাইকেলের সঙ্গে। ৪০ জন বিচারকের ভোটে এই শিরোপা জিতেছে তারা। 

‘রেড ডট’ পুরস্কারও জিতেছে বাইকটি। ২০১৯ সালে ডিজাইন ডুকাতি ডিয়াভেল ১২৬০ মডেলের  বাইকটিতে আছে ১২৬২ সিসির ইঞ্জিন। এতে রয়েছে সর্বোচ্চ ১৫৯ বিএইচপি শক্তি  এবং ১২৮ নিউটন মিটার টর্ক।

শক্তিশালী ইঞ্জিন
ভারত, বাংলাদেশসহ এশিয়ার ১৬০ সিসির যত বাইক আছে তার মধ্যে শক্তিশালী টিভিএস অ্যাপাচি আরটিআর ভার্সন ফোর। টিভিএস দাবি করছে, তাদের এই রেসিং মেশিন সর্বোচ্চ ১১৩ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারে। ০ থেকে ৬০ কিলোমিটার গতি তুলতে বাইকটির সময় লাগে মাত্র ৪.৭৩  সেকেন্ড। 

টিভিএস অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ভার্সন ফোর মডেলে আছে ১৫৯.৫ সিসির সিঙ্গেল সিলিন্ডার এয়ার কুলড ইঞ্জিন। এতে সর্বোচ্চ ১৬.৬ বিএইচপি শক্তি এবং ১৪.৮ নিউটন মিটার টর্ক পাওয়া যাবে। 

বাইকটিতে পাঁচ স্পিড গিয়ার বক্স দেওয়া হয়েছে। সাসপেনশন বিভাগে সামনে থাকছে টেলিস্কোপিক ফর্ক আর পিছনে থাকছে টুইন শক।

কম দামি বাইকে সিবিএস
কম্পাইন্ড ব্রেকিং সিস্টেমে এলো বাজাজের জনপ্রিয় কমিউটার প্লাটিনা। এটি বাজাজ প্লাটিনা ১০০ কেএস সিবিএস ভার্সন। এতে ১০২ সিসির সিঙ্গেল সিলিন্ডার এয়ার কুলড ডিটিএস-আই ইঞ্জিন রয়েছে। এই ইঞ্জিনে ৭.৮ বিএইচপি শক্তি এবং ৮.৩৪ নিউটন মিটার টর্ক পাওয়া যাবে। বাইকটিতে ফোর স্পিড গিয়ারবক্স রয়েছে। 

ভারতে নতুন কিএস ভার্সনের প্লাটিনার দাম মাত্র ৪০ হাজার ৫০০ রুপি। এই বাইকটির সেলফ স্টার্ট ভার্সন পাওয়া যাবে ৪৭ হাজার ৫০০ টাকায়।  
নতুন প্লাটিনা মোটরসাইকেলে একই দামের অন্যান্য মোটরসাইকেলের থেকে ২০ শতাংশ কম ঝাঁকুনি হবে বলে দাবি করেছে বাজাজ।

নতুন রেসিং বাইক
সম্প্রতি নতুন ভার্সনে রেসিং বাইক আনার ঘোষণা দিয়েছে বাজাজ। মডেল বাজাজ ডমিনার ৪০০। এতে সম্পূর্ণ রেসিং থ্রটল পাওয়া যাবে। বাইকটিতে আছে ৩৭৩.৩ সিসির সিঙ্গেল সিলিন্ডার লিকুইড কুলড ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিন ৪০০ সিসির সেগমেন্টের অন্য সব বাইকের তুলনায় অনেক বেশি শক্তিশালী। বাইকটিতে ৩৯ বিএইচপি শক্তি এবং ৩৫ নিউটন মিটার টর্ক পাওয়া যাবে। ২০১৬ সালের পর এই প্রথম ডমিনার ৪০০ এর আপডেট ভার্সন আসছে।

(ঢাকাটাইমস/২৩এপ্রিল/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :