দুর্ঘটনায় নিহতদের একজন রিকশাচালক সুমন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:৫৫
নিহত সুমনের স্ত্রী শান্তা আক্তার

রাজধানীর রমনা মডেল থানার মৎস্য ভবনের সামনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় মিলেছে। তার নাম সুমন। তিনি ছিলেন দুর্ঘটনা কবলিত রিকশাটির চালক।

নিহত সুমন টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ি থানার রনগুণ্ডাপাড়া গ্রামের আবদুর রহিম ও বানেছা বেগমের ছেলে।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পরিবারের সদস্যরা এসে তার মরদেহ শনাক্ত করেন।

সকাল সাতটার দিকে স্বাধীন পরিবহনের মিরপুর থেকে শাহবাগ হয়ে মাওয়াগামী একটি বাসের সঙ্গে পরমাণু শক্তি কমিশনের একটি বাস, দুটি প্রাইভেটকার ও দুটি রিকশার সংঘর্ষ হয়। এর মধ্যে বাসের ধাক্কায় একটি রিকশার চালক সুমন ঘটনাস্থলেই ও আরোহী ঢামেক হাসপাতালে নিহত হন। নিহত চালক সুমন ভোর ছয়টার দিকে শাহজাহানপুরের বাসা থেকে বেরিয়েছিলেন রিকশা নিয়ে। নিহত রিকশা আরোহীর পরিচয় এখনো শনাক্ত হয়নি।  আহত দুজনের মধ্যে শরিফ মাহমুদ ঢামেক হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন। আর নূর আলম জরুরি বিভাগের অস্ত্রোপচার কক্ষে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার দুই পা ভেঙে গেছে, অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

নিহত সুমনের স্ত্রী শান্তা আক্তার ঢাকা টাইমসকে বলেন, ২০১১ সালে তাদের বিয়ে হয়। সংসারে শেফায়েত ও শাহাদাত নামে চার ও পাঁচ বছরের দুইটি শিশুসন্তান রয়েছে। সুমনই ছিলেন একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। মাত্র তিন হাজার টাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন তারা।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বাধীন পরিবহনের চালক নজরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম ও জনসংযোগ বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ওবায়দুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থল থেকেই নজরুলকে গ্রেপ্তার করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/২৩ এপ্রিল/এএ/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :