খুলনায় চাঁদাবাজির অভিযোগে দুই এএসআইসহ আটক ৩

খুলনা ব্যুরো, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ০০:১৩

খুলনা নগরীর নিরালা প্রান্তিকা আবাসিক এলাকায় একটি বাড়িতে নারী দিয়ে ফাঁসিয়ে এক যুবককে আটকে রেখে চাঁদাবাজির অভিযোগে পুলিশের দুই সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ও এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

তারা হলেন সদর থানার (এএসআই) সিফাত, সোনাডাঙ্গা থানার এএসআই মিরান ও ফাতেমা (৪২)। 

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী যুবক মামলা দায়ের করবেন বলে নিশ্চিত করেছেন খুলনা মেট্রোপলিটন (কেএমপি) অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার শেখ মনিরুজ্জামান মিঠু। 

তিনি জানান,  নগরীর নিরালা প্রান্তিকা আবাসিক এলাকার ৪নং রোডের একটি বাসায় মো. মনির হোসেনের স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৪২) ভাড়া থাকেন। গত ২২ এপ্রিল (সোমবার) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই বাড়িতে ভুক্তভোগি যুবক সঞ্জিৎ শীলকে এক যুবতী নারীকে দিয়ে ফাঁসিয়ে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবি করে এএসআই সিফাত ও এএসআই মিরান। পরবর্তিতে ২৭হাজার ৫০০টাকা  দিয়ে মুক্তি পান ওই যুবক।

এ ঘটনার বিষয়ে তিনি সদর থানা পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ রাতেই ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ফাতেমা বেগমকে আটক করে। এরপর তার তথ্য মতে এএসআই সিফাত ও মিরানকে আটক করা হয়।

ঢাকাটাইমস/২৩এপ্রিল/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :