সুনামগঞ্জে জিনের বাদশাসহ তিনজন আটক

সুনামগঞ্জ প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ২২:১৬

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে সাড়ে তিন কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে জিনের বাদশাসহ তিনজনকে নেত্রকোনা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারদের একজন হাফিজ কামরুল ইসলাম। তিনি নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুরি উপজেলার দাউদপুর গ্রামের বাসিন্দা। বাকি দুজন হাফিজ কামরুল ইসলামের বাবা আব্দুল কাদির ও  মা রেনু বেগম।

জগন্নাথপুর থানার উপ-পরিদর্শক হাবিবুর রহমান বলেন, ‘ব্যবসায়ী এমরান আহমদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে নেত্রকোণা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার কুট বটতল গ্রামে অভিযান চালিয়ে হাফিজ কামরুল ইসলাম, তার বাবা আব্দুল কাদির ও মা রেনু বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়। শুক্রবার বিকালে সুনামগঞ্জ কারাগারে পাঠানো হয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর বাজারের হোটেল ও স্যানিটারি মালামাল বিক্রেতা মাওলানা এমরান আহমদ-এর সাথে ২০১৮ সালে জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর গ্রামের এনামুল হাসানের মাধ্যমে পরিচয় হয় নেত্রকোণা জেলার খালিয়াজুরি উপজেলার দাউদপুর গ্রামের হাফিজ কামরুল ইসলামের। কামরুল ইসলাম সৈয়দপুর গ্রামের লন্ডনপ্রবাসী রহমত আলীর বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করত।

কামরুল ইসলাম নিজেকে জিনের সাথে সুসম্পর্ক রয়েছে বলে এমরান আহমদকে জানায়। তার ঘরে বিভিন্ন ড্রামে ১৫০০ কোটি টাকা রয়েছে। সে টাকা নিতে হলে সাড়ে তিন কোটি টাকা জিনের জন্য শিরনী হিসেবে দিতে হবে। এই ফাঁদে ফেলে ১৫শ কোটি টাকা দেয়ার কথা বলে বিভিন্ন কিস্তিতে সাড়ে তিন কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। এ বিষয়ে এমরান আহমদ জগন্নাথপুর থানায় মামলা করে।

জগন্নাথপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নব গোপাল দাস বলেন, ‘পুলিশ ঘটনাটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছে। এ ঘটনায় ছয়টি ড্রাম উদ্বার করা হয়।’

(ঢাকাটাইমস/২৬এপ্রিল/টিএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :