স্বামীর দেয়া আগুনে পোড়া সেই গৃহবধূর মৃত্যু

চাঁদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৪ মে ২০১৯, ১৬:২৬ | প্রকাশিত : ০৪ মে ২০১৯, ১৬:২১

স্বামীর দেয়া আগুনে পোড়া সেই গৃহবধূ দীপিকা আচার্য মনিকা চার দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করেও বাঁচতে পারেননি। শুক্রবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। নিহতের বড় ভাই অরবিন্দ আচার্য এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে মঙ্গলবার রাতে দীপিকার গায়ে কেরোসিন ঢেলে তার স্বামী বিপুল আচার্য আগুন ধরিয়ে দেন। পরে দগ্ধ এই গৃহবধূকে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেয়া হয়। সেখান থেকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটি স্থানান্তর করা হয়।
নিহত গৃহবধূ দীপিকা নরসিংদীর মাধবদী পৌরসভার ছোট মাধবদী গ্রামের রনজিত আচার্যের মেয়ে। নিহত দীপিকার স্বস্তিকা আচার্য নামে তিন বছরের একটি মেয়ে রয়েছে।

আগুন দেয়ার ঘটনায় ২ মে দীপিকার ভাই তিনজনকে আসামি করে হাজীগঞ্জ থানায় মামলা করেছেন। পরে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তাররা হলেন- হাজীগঞ্জ পৌরসভার দীপিকার স্বামী বিপুল আচার্য, বিপুলের বড় ভাই স্বজন আচার্য ও তার মা সন্ধ্যা আচায।
৩ মে আসামিদের চাঁদপুর আদালতে পাঠায় পুলিশ। পরে আদালতের বিচারিক হাকিম কফিল উদ্দিন জামিন না মঞ্জুর করে আসামিদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, আট বছর আগে দীপিকার সঙ্গে বিপুলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের দাম্পত্যজীবনে কলহ দেখা দেয়। তারই সূত্র ধরে দীপিকার স্বামী বিপুল আচার্যসহ অন্য আসামিরা ৩০ এপ্রিল গভীর রাতে হত্যার উদ্দেশ্যে তার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে বিষয়টিকে দুর্ঘটনা বলে চালিয়ে দিতে রাতেই দীপিকাকে প্রথমে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকেই পরদিন তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়।

হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, ‘অগ্নিদগ্ধ দীপিকা নিহত হওয়ার খবরটি আমরা নিশ্চিত হয়েছি। গ্রেপ্তার তিন আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। নিহতের ভাই অরবিন্দ আচার্য যে মামলাটি করেছে, তাতে হত্যার চেষ্টা ও হত্যার কথা উল্লেখ রয়েছে। তাই নতুন করে মামলা করতে হবে না।’

(ঢাকাটাইমস/৪মে/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :