ক্যাবল ছাড়াই টিভি দেখার ডিটিএইচ সেবার উদ্বোধন কাল

আসাদুজ্জামান, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৫ মে ২০১৯, ১৪:২৬ | প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৯, ১৪:০৭

আগামীকাল দেশে ক্যাবল ছাড়াই টিভি দেখার ডিটিএইচ সুবিধা উদ্বোধন হচ্ছে।  ‘আকাশ ডিটিএইচ’ নামে এই সুবিধা আনছে বেক্সিমকো।  কাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে এই সেবার উদ্বোধন ঘোষণা করা হবে। 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, প্রধানমন্ত্রীর বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এবং বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান শায়ান এফ রহমান। 

কেবল সংযোগ ছাড়াই স্যাটেলাইট টিভি দেখার উন্নত প্রযুক্তি হচ্ছে ডাইরেক্ট টু হোম বা ডিটিএইচ। এ প্রযুক্তিতে গ্রাহক সরাসরি স্যাটেলাইট থেকে অনুষ্ঠান নিজের টিভিতে ডাউনলিংক করতে পারেন। এই প্রযুক্তিতে ছবি ও শব্দ আসে কেবল সংযোগের চেয়ে দ্রুতগতিতে। প্রতিটি চ্যানেলের ছবি ও শব্দের মান থাকে একই রকম। প্রতিবেশী দেশ ভারতে টাটা স্কাই, রিলায়েন্স, ডিশ টিভি, এয়ারটেলসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ডিটিএইচ সেবা দিচ্ছে।

ডিটিএইচ প্রযুক্তির মাধ্যমে টিভি দর্শকরা বাড়িতে একটি রিসিভার বসিয়ে সরাসরি স্যাটেলাইট সিগন্যাল গ্রহণ করতে পারবেন। ব্রডকাস্টিং কোম্পানিগুলোকে আলাদা তারের মাধ্যমে প্রতিটি টিভি সেটে সংযোগ দেওয়ার প্রয়োজন পড়বে না। এখানে সরাসরি কৃত্রিম উপগ্রহ বা স্যাটেলাইট থেকে সংকেত গ্রহণের মাধ্যমে স্যাটেলাইট চ্যানেলগুলো দেখা যাবে ঘরের টিভিতে। এক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সিগন্যালের মাধ্যমে সেবা দেবে বেক্সিমকোর আকাশ ডিটিএইচ।

বেক্সিমকোর আকাশ ডিটিএইচ-এর হেড অব টেকনোলজি আনোয়ারুল আজিম ঢাকা টাইমসকে বলেন, আমরা দেশে রিয়েলভিউর মাধ্যমে সর্বপ্রথম ডিটিএইচ সুবিধা চালু করেছিলাম। সেটা ছিল একটা পরীক্ষামূলক সেবা। তখনকারর চেয়ে আমাদের বর্তমান সেবা আকাশ ডিটিএইচের মান উন্নত। তাই রিয়েল ভিউ ডিটিএইচ-এর সংযোগ মূল্য এবং প্যাকেজের চেয়ে আকাশ ডিটিএইচের দাম কিছুটা বাড়বে। তবে গ্রাহকরা আগের চেয়ে ভালো মানের সেবা ও সুযোগ-সুবিধা পাবেন। যেমন পেমেন্ট অপশন ফেক্সিবল থাকবে। কাস্টমার নতুন কাস্টমাইজড ভিউইং এক্সপেরিয়েন্স পাবেন। চাইলে তারা একটা অনুষ্ঠান রেকর্ড করে রাখতে পারবেন। অনুষ্ঠান শিডিউল আগে থেকে জানতে পারবেন এবং অনুষ্ঠান দেখার জন্য রিমাইন্ড সেট করে রাখতে পারবেন। 

তিনি আরো বলেন, ‘শুরুতে ব্যবহারকারীদের জন্য একটি প্যাকেজ চালু করা হবে। পর্যায়ক্রমে সব শ্রেণির ব্যবহারকারীদের জন্য ভিন্ন ভিন্ন প্যাকেজ থাকবে। প্রথম পর্যায়ে ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং সিলেটে আকাশ ডিটিএইচ-এর সেবা চালু হচ্ছে। তবে কেউ চাইলে এই তিন শহরের বাইরে বসে ডিটিএইচ সেবা নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে নিজ উদ্যোগে ডিটিএইচ স্থাপন, সংযোজন এবং ব্যবহার করতে হবে। তবে শিগগিরই সারা বাংলাদেশে বিক্রি ও সেবা কার্যক্রম সেবা চালু হচ্ছে।’ 

ডিটিএইচ এ প্রযুক্তিতে সিগন্যাল ডাউনলিংকের মাধ্যমে ছবি ও শব্দ আসে কেব্ল সংযোগের চেয়ে দ্বিগুণেরও বেশি গতিতে। ডিটিএইচ প্রযুক্তিতে তথ্য স্থানান্তরের গতি ১১ দশমিক ৭ থেকে ১৪ দশমিক ৫৫ গিগাহার্টজ।

কম ঝামেলাপূর্ণ ও স্বল্প খরচে নিজের পছন্দমতো চ্যানেল দেখার সুবিধার জন্য ডিটিএইচে পাওয়া যায়। কোনো এলাকায় বিদ্যুৎ গেলেও জেনারেটর বা আইপিএস, সোলারের মাধ্যমে টিভি দেখা যাবে।  

ডিটিএইচ একটি স্যাটেলাইট সিস্টেম ব্যবহার করে সরাসরি গ্রাহকের টিভিতে সিগন্যাল পৌঁছে দিয়ে মাল্টি-চ্যানেল টিভি প্রোগ্রাম দেখার সুযোগ করে দেয়। ডিটিএইচ সংযোগের সাথে একটি ডিশ ও রিসিভার সেট প্রদান করা হয়। এই ডিশের মাধ্যমে সিগন্যাল গ্রহণ করে রিসিভিং সেটের সাহায্যে দর্শকরা তাদের বাড়িতে বসে বিভিন্ন চ্যানেল দেখতে পারবেন। ডিটিএইচ’র অনেকগুলো সুবিধার একটি হচ্ছে গ্রাহকরা নিজেরাই পছন্দনীয় চ্যানেলগুলো বাছাই করতে পারবেন। কেবল অপারেটরের পছন্দে চ্যানেল দেখতে হবে না। কেবলে সিগন্যাল ব্রেক হয়। ডিটিএইচ প্রযুক্তিতে সিগন্যাল ব্রেক হয় না।

(ঢাকাটাইমস/১৫মে/এজেড) 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :