শ্রীলঙ্কায় গ্রেপ্তার সহস্রাধিক, নিষিদ্ধ ড্রোন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ মে ২০১৯, ১১:৫০

শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডেতে গির্জায় ভয়াবহ আত্মঘাতী হামলার পর সাধারণ মানুষের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে ড্রোনের ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির সরকার। পরবর্তী নির্দেশ জারি না হওয়া পর্যন্ত দেশের কোথাও কোনো কাজে ড্রোন ব্যবহার করা যাবে না বলে শ্রীলঙ্কা সরকারের তরফে এক বিবৃতিতে ঘোষণা করা হয়েছে।

ইতিমধ্যেই ন্যাশনাল তৌহিদ জামাতসহ দেশের তিনটি কট্টরপন্থী সংগঠনকে নিষিদ্ধ করেছে শ্রীলঙ্কা সরকার। ইস্টার সানডের নাশকতার জেরেই এই নিষেধাজ্ঞা। যে হামলায় প্রাণ হারান ২৫০ জনেরও বেশি মানুষ। ইসলামিক স্টেট হামলার দায় নিলেও সরকারের দাবি, ন্যাশনাল তৌহিদ জামাতসহ তিনটি সংগঠন নাশকতায় জড়িত। তারা আইএসের হয়ে কাজ করছে।

প্রেসিডেন্ট মৈত্রীপালা সিরিসেনা গত সোমবারই গেজেট ইস্যু করে, ওই তিনটি মুসলিম সংগঠনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন। বাকি দুটি হল জামাতে মিলিয়তে ইব্রাহিম ও উইলিয়থ আস সিলানি। ২১ এপ্রিল এক মহিলাসহ ৯ সুইসাইড বোম্বার শ্রীলঙ্কার অভিজাত হোটেল ও গির্জাগুলিতে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ ঘটায়। যার জেরে ৪৪ বিদেশিসহ ২৫৮ জন নিহত হন। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার হয়েছে ১০০০ জনেরও বেশি।

ওই হামলার পর মসজিদ ও মুসলিমদের প্রতিষ্ঠানে একাধিক হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন নিহত হয়েছেন। শুরু থেকেই জাতিগত বিদ্বেষ না ছড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে শ্রীলঙ্কা সরকার। জাতিগত দাঙ্গা বন্ধ করতে নানারকম কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে দেশটির সরকার।

ঢাকা টাইমস/১৬মে/একে

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :