ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৩১ দশমিক ৮৬ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ মে ২০১৯, ০৯:২৩
ফাইল ছবি

গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। সেই সঙ্গে কমেছে লেনদেনের পরিমাণও। আলোচ্য সময়ে ডিএসইতে লেনদেন ৩১ দশমিক ৮৬ শতাংশ কমেছে।

ডিএসইর সাপ্তাহিক লেনদেন পর্যালোচনা করে এ তথ্য জানা গেছে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে ৫ কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৪৬১ কোটি ৫১ লাখ ৭৯ হাজার ৮৩৩ টাকার শেয়ার। আগের সপ্তাহে ছিল ছিল ২ হাজার ১৪৪ কোটি ৮১ লাখ ৬৯ হাজার ৮৮০ টাকা। অর্থৎ লেনদেন কমেছে ৬৮৩ কোটি ২৯ লাখ ৯০ হাজার ৪৭ টাকা।

আলোচ্য সময়ে ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এ’ ক্যাটাগরির শেয়ারের দখলে ছিল ৮৪ দশমিক ২৩ শতাংশ, যা অঙ্কের হিসাবে ১ হাজার ২৩০ কোটি ৯৭ লাখ ৭৯ হাজার ৮৩৩ টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৭৩২ কোটি ৮৫ লাখ ৯০ হাজার ৮৮০ টাকা।

গেল সপ্তাহে ‘বি’ ক্যাটাগরির শেয়ারের অংশগ্রহণ ছিল ৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ। এসব শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৪৫ কোটি ৭৬ লাখ ১৫ হাজার টাকা, যা আগের সপ্তাহে ছিল ২৪১ কোটি ৪৮ লাখ ১ হাজার টাকা।

নতুন কোম্পানির শেয়ারের লেনদেন আগের সপ্তাহের চেয়ে কমেছে। ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এন’ ক্যাটাগরির অংশগ্রহণ ছিল ৪ দশমিক ৯১ শতাংশ। এসব শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ৭১ কোটি ৭৩ লাখ ৫৪ হাজার টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১৫৩ কোটি ২৮ লাখ ৩৮ হাজার টাকা।

ডিএসইর লেনদেনে গেলো সপ্তাহে ‘জেড’ ক্যাটাগরির দখলে ছিল দশমিক ৮৯ শতাংশ। এসব শেয়ারের লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৩ কোটি ৪ লাখ ৩১ হাজার টাকা, যা আগের সপ্তাহে ছিল ১৭ কোটি ১৯ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

গত সপ্তাহে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। আলোচ্য সময়ে ৩৫৩টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ১২২টির, কমেছে ১৯৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির শেয়ার দর। আর লেনদেন হয়নি ৩টি কোম্পানির শেয়ার।

দর হারানো শীর্ষ দশে এসএস স্টিল

গত সপ্তাহে লেনদেন শেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) শীর্ষ দশ দরপতনের শীর্ষে রয়েছে এসএস স্টিল। সপ্তাহে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর কমেছে ১০ দশমিক ১৮ শতাংশ।

ডিএসইর সপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনা করে দেখা যায়, শেয়ারটি সর্বশেষ ৩০ টাকা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটি সর্বমোট ২০ কোটি ৫ লাখ ৭১ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন ৪ কোটি ১ লাখ ১৪ হাজার ২০০ টাকা।

দর হারানোর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং। সপ্তাহে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর কমেছে ১০ দশমিক ৮ শতাংশ। কোম্পানিটির শেয়ার সর্বশেষ ২২ টাকা ৩০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটি সর্বমোট ১১ কোটি ২৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা লেনদেন করে। গড়ে প্রতিদিন ২ কোটি ২৫ লাখ ৪৬ হাজার টাকা লেনদেন হয়।

দুলামিয়া কটন ছিল শীর্ষ তিনে। সপ্তাহে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর কমেছে ৯ দশমিক ৩১ শতাংশ। শেষ দিন ৫১ টাকা ৫০ পয়সা দরে লেনদেন হয় এই শেযার। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটি সর্বমোট ৮৪ লাখ ১ হাজার টাকা লেনদেন করে। গড়ে প্রতিদিন ১৬ লাখ ৮০ হাজার ২০০ টাকা।

তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হলো- এস্কয়ার নিট, ইন্দো-বাংলা ফার্মা, নাভানা সিএনজি, আমান কটন, যমুনা ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক ও মেঘনা পেট।

সপ্তাহে দর বাড়ার শীর্ষে ছিল যারা

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনা করে দেখা যায়, গত সপ্তাহ লেনদেন শেষে ডিএসইতে শীর্ষ দশ মূল্যবৃদ্ধির তালিকার সবার ওপরে উঠে এসেছে ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স। শেয়ারটির সর্বচ্চ দর বেড়েছে ১৩ দশমিক ৯৩ শতাংশ।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, শেয়ারটি সর্বশেষ ৬৪ টাকা ৪০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটি সর্বমোট ৫ কোটি ৯৪ লাখ ৭৪ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন ১ কোটি ১৮ লাখ ৯৪ হাজার ৮০০ টাকা।

মূল্যবৃদ্ধির শীর্ষ দশের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে আইএফআইসি ব্যাংক। এ সপ্তাহে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর বেড়েছে ১১ দশমিক ২১ শতাংশ। কোম্পানিটি সর্বশেষ ১১ টাকা ৮০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটি সর্বমোট ২৭ কোটি ৮৭ লাখ ৯৩ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন দাঁড়ায় ৫ কোটি ৫৭ লাখ ৫৮ হাজার টাকা।

এলআর গ্লোবাল বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ড তৃতীয় স্থানে রয়েছে। সপ্তাহে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর বেড়েছে ৯ দশমিক ৬৮ শতাংশ। কোম্পানিটি সর্বশেষ ৬ টাকা ৮০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটি সর্বমোট ১ লাখ ১০ হাজার টাকা লেনদেন করে, যা গড়ে প্রতিদিন দাঁড়ায় ২২ হাজার টাকা।

তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হলো- ব্যাংক এশিয়া, পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স, রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ঢাকা ব্যাংক, প্রগতি ইন্স্যুরেন্স, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স ও ট্রাস্ট ব্যাংক।

(ঢাকাটাইমস/১৮মে/আরএ/জেবি)

 

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

পুঁজিবাজার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :