এবার ফরিদপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলো ছাত্রলীগ

মুজাহিদুল ইসলাম নাঈম, আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর)
 | প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৯, ১৮:০৯

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের নির্দেশনায় এবার ফরিদপুরে অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিলেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। রবিবার জেলার সদর উপজেলার কানাইপুর ইউনিয়নের মালাঙ্গা গ্রামের দুই কৃষক টুকু মিয়া ও ফজলু শেখের ধান কেটে দেন তারা। এসময় ধান কাটতে আরো সহযোগিতা করেন কানাইপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও তরুছায়ার সদস্যরা।

সারাদেশের মতো ফরিদপুরের কানাইপুরেও চলতি বোরো মৌসুমে দিনমজুর সঙ্কট ও পাশাপাশি বাড়তি মজুরির চাহিদা মেটাতে বিপাকে পড়েন কানাইপুরের মালাঙ্গা গ্রামের দুই কৃষক টুকু মিয়া ও ফজলু শেখ।

এমনি সময় ওই দুই কৃষকের ধান কাটতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফকির মো. সুজায়েত হোসেন ও অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

কৃষক টুকু মিয়া জানান, দিনমজুর সঙ্কট ও বাড়তি মজুরির কারণে আমি মাঠে ধান পেকে গেলেও কাটতে পারছিলাম না। শেষ পর্যন্ত আমার স্কুল পড়ুয়া ছেলে অর্ককে নিয়ে ১৫ কাঠা জমির  ধান কাটা শুরু করি। খবর পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান, ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ও তরুছায়ার সদস্যরা ধান কাটতে সহযোগিতা করেন। আমরা তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।

জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফকির মো. সুজায়েত হোসেন বলেন, ‘কৃষক বাঁচলেই বাঁচবে দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ- এই স্লোগানকে বুকে ধারণ করে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ভাই ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী ভাইয়ের নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে আমরা আজকে কৃষকের পাকা ধান কাটতে মাঠে নেমেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমি আমার ভালোবাসার সংগঠনের প্রত্যেক নেতাকর্মীসহ সকল শ্রেণী পেশার মানুষের প্রতি উদাত্ত আহবান থাকবে- আজকে থেকে দৃঢ প্রত্যয় নিয়ে মাঠে নামুন, ফরিদপুর জেলাসহ বাংলাদেশের অসহায় সকল কৃষক ভাইদের পাশে এসে দাঁড়ান। ’

এ ব্যাপারে কানাইপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফকির বেলায়েত হোসেন বলেন, ‘আমিও কৃষকের সন্তান। তাই ওদের পাশে দাঁড়াতে পেরে আমি নিজে গর্বিত।’

(ঢাকাটাইমস/২৬মে/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত