‘১১ জুন শেখ হাসিনার মুক্তিতে গণতন্ত্রের মুক্তি হয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ জুন ২০১৯, ২০:৫০

যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমের ফারুক চৌধুরী বলেছেন, ‘২০০৭ সালের ১৬ জুলাই রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনাকে কারারুদ্ধ করার মধ্য দিয়ে মূলত গণতন্ত্রকে কারারুদ্ধ করা হয়েছিলো, বাংলাদেশের মানুষের আশা-আকাঙ্খা-স্বপ্নকে কারারুদ্ধ করা হয়েছিলো।

তিনি বলেন, ‘তৎকালীন সেনা সমর্থিত অনির্বাচিত সরকার মাইনাস ওয়ান ফর্মূলা বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকারকে নস্যাৎ করার লক্ষ্যে মূলত শেখ হাসিনাকে কারারুদ্ধ করা হয়েছিলো। ছাত্র-যুব-জনতার নিরন্তর আন্দোলনের মুখে ২০০৮ সালের ১১জুন তৎকালীন সরকার রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়। শেখ হাসিনার মুক্তির মধ্য সেদিন গণতন্ত্র মুক্তিপায়। তাই ১১জুন শুধু মাত্র শেখ হাসিনার মুক্তি দিবসই নয় এটা গণতন্ত্রের মুক্তি দিবস।

বুধবার সকাল ১০ টায় রাজধানীর ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিয়স্হ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে “১১জুন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস” উপলক্ষে যুবলীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আলোচনা সভার প্রধান অতিথি যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবীর নানক বলেন, ‘ওয়ান ইলেভেন সরকারের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে নেত্রীর মুক্তি আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।’

২০০৭ সালের ৭মে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, কিছু আওয়ামী লীগ নেতার হুমকি ধমকি ও তৎকালীন সরকারের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে সেদিন লক্ষ লক্ষ যুবলীগ নেতাকর্মী মিছিল সহকারে নেত্রীকে বিমানবন্দর থেকে সুধাসদনে নিয়ে যায়। যুবলীগ এতে গর্বিত।

যুবলীগ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বশুন্যতাকে দূর করেছে।

এ সময় সিরাজুল আলম খানের সমালোচনা করে নানক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে ব্যঙ্গ করার অপরাধে সিরাজুল আলম খানকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।’

সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য, যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মির্জা আজম এমপি এবং যুবলীগের সাধারন সম্পাদক, মো. হারুনুর রশীদ।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, যুবলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য শহীদ সেরনিয়াবাত, মো. ফারুক হোসেন, মাহবুবুর রহমান হিরন, আব্দুস সাওার মাসুদ, আতাউর রহমান, অধ্যপক আমজাদ হোসেন, আনোয়ারুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মহিউদ্দীন মহি, সাংগঠনিক সম্পাদক বদিউল আলম বদি, ফজলুল হক আতিক,  এমরান হোসেন খান, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য মিজানুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর যুবলীগ (উত্তর) এর সভাপতি মাইনুল হোসেন খান নিখিল, ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) এর সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট, টাকা মহানগর (উত্তর) এর সাধারণ সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন, ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) এর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করীম রেজা, সহ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম, মিল্লাত হোসেন।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করনে আওয়ামী যুবলীগের প্রচার সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ বাবলু।

ঢাকাটাইমস/১২জুন/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :