রোগীর গালে চুমু দেওয়া চিকিৎসককে আইনি নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ জুন ২০১৯, ১৬:৩৪

চিকিৎসার সময় কৌশলে তরুণীর স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেওয়া এবং গালে চুমু দেওয়ার অভিযোগ উঠা চিকিৎসককে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। তিন দিনের মধ্যে সুনির্দিষ্ট কারণ জানাতে না পারলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে।

রবিবার সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী সানোয়ার হোসেন সমাজদার ও মেহেদী হাসান ওই তরুণীর পক্ষে চর্ম ও যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ শওকত হায়দার বরাবর আইনি নোটিশ পাঠান।

নোটিশ পাঠানো আইনজীবী মেহেদী হাসান ঢাকা টাইমসকে বলেন, ‘ওই চিকিৎসক তরুণীর সঙ্গে যৌন হয়রানী করে দুঃখিত বলে অপরাধ স্বীকার করেছেন। যা সমাজ ব্যবস্থার সাথে অসামজ্যপূর্ণ ও সামাজিক অবক্ষয় বটে। তাই এই কর্মকাণ্ডের দায় তিনি কোনোভাবে এড়াতে পারেন না। তাছাড়া এই ধরণের কর্মকাণ্ড বিএমডিসি আইনে নীতিমালা বিরোধী। তার এই কুরুচিপূর্ণ মনোভাবের কারণ চিঠি পাওয়ার তিনদিনের মধ্যে বিবৃতি আকারে জবাব চাওয়া হয়েছে। না হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ওই তরুণীর গালে ব্রন দেখতে গিয়ে চিকিৎসক শওকত হায়দার চুমু দিয়েছেন বলে সম্প্রতি অভিযোগ ওঠে। পপুলার ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড হাসপাতালে এই কাণ্ডের পর দুই জনের কথোপকথনের একটি অডিও রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। মেয়েটি যখন তার গালে চুমু দেওয়ার কারণ জানতে চান, তখন পুরুষ কণ্ঠে একজন বলেন, গালে ইনফেকশন আছে কি না, এটা বুঝতে তিনি চুমু দিয়েছেন।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী ত্বকে ব্রণের সমস্যা নিয়ে পরিচিত একজনের রেফারেন্সে প্রথমবার পপুলার হাসপাতালের ওই ডাক্তারের কাছে যান। পরবর্তী সময়ে চিকিৎসার প্রয়োজনে আরও কয়েকবার প্রায় ডাক্তারের কাছে যেতেন।

গত ১৫ জুন দুপুরে ওই তরুণী তার চিকিৎসক শওকতকে জানান তার ত্বকের সমস্যা আবার বেড়েছে, রাতে তিনি চেম্বারে বসবেন কি না? চেম্বারেই আছেন জানিয়ে মেয়েটিকে তখনই যেতে বলেন চিকিৎসক। তিনি তরুণীটিকে কোমরে ইনজেকশন নিতে বলেন।

তরুণীটেবিলে শুলে ওই ডাক্তার মেয়েটির বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিতে থাকেন। মেয়েটি প্রতিবাদ করলে তিনি বলেন, কোথায় ইনজেকশন দিলে ভালো হয় তা চেক করে দেখছিলেন তিনি।

ঘটনার দিন ওই তরুণী হাসপাতাল বরাবর একটি অভিযোগ দেন। ১৭ জুন অভিযুক্ত চিকিৎসক শওকত হায়দারকে পপুলার হাসপাতাল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

ঢাকাটাইমস/২৩জুন/এসএস/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :