ঘাটাইলে মাদরাসাছাত্রীকে ‘গণধর্ষণ’, আটক ২

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০১৯, ২২:৪৮

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক মাদরাসাছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। আলমগীর হোসেন ও আ. হামিদ ওরফে আলপিন নামে  দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার ছাত্রীটির মা বিনা বেগম বাদী হয়ে ঘাটাইল থানায় গণধর্ষণের মামলা করেন।

মামলার বিবরল থেকে জানা যায়, ঘাটাইল উপজেলার লোকেরপাড়া ইউনিয়নের দশআনি বকশিয়া গ্রামের তোফাজ্জল হোসেন ও বিনা বেগমের মেয়ে মৌ খাতুন। সে দশআনি বকশিয়া দাখিল মাদরাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। মোবাইলে প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে ২১ জুন ছাত্রীটি রাতে বড়শিলা গ্রামের শাওনের সাথে দেখা করতে বাড়ি থেকে বের হয়। ছাত্রীটি হোসেন আলীর বাড়ির পাশের ইটের সলিংয়ের রাস্তায় পৌঁছালে   আলমগীর হোসেন  ও  আ. হামিদ ওরফে আলপিন ছাত্রীটিকে শাওনের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে। তারা ছাত্রীটিকে কৌশলে হোসেন আলীর বসতভিটার ফাঁকা জায়গায় নিয়ে যায়। পরে তারা দুজনেই ছাত্রীটির মুখ বেঁধে ভ্যান গাড়িতেই পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ করে।

ছাত্রীটির মা বিনা বেগম জানান, ধর্ষণের কারণে মেয়ের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমপ্রাপ্ত হয়েছে। এক পর্যায়ে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে আলমগীর ও আলপিন তাকে রেখে পালিয়ে যায়। পরে সে কিছুটা সুস্থ হয়ে বাড়িতে এসে ঘটনাটি জানায়।  গ্রামবাসী বিষয়টির মীমাংসার উদ্যোগ নেয়। বিষয়টি মীমাংসা না হওয়ায় ২৪ জুন (সোমবার)ঘাটাইল থানায় গণধর্ষর্ণের মামলা করেছি।

ঘাটাইল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এনামুল হক চৌধুরী বলেন, ‘ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং অভিযুক্ত দুই ধর্ষককে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’

(ঢাকাটাইমস/২৪জুন/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :