কর্মী ছাটাইয়ের ব্যাখ্যা দিল পাঠাও

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০১৯, ১৬:২০

বিনা নোটিশে তিন শতাধিক কর্মী ছাটাই করেছে দেশের রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাও। গণমাধ্যমে এই খবর প্রকাশের পর প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয়া হয়েছে। বিবৃতিতে পাঠাও স্বীকার করেছে যে তারা কর্মী ছাটাই করেছে। কিন্তু কতজন কর্মী ছাটাই হয়েছে সে বিষয়ে বিবৃতিতে কিছু  উল্লেখ করা হয়নি।  পাঠাওর হেড অব মার্কেটিং নাবিলা মাহবুবের পক্ষ থেকে বিবৃতিটি পাঠানো হয়েছে।

সংবাদমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠান দাবি করছে, অনাকাঙ্খিত ব্যয় বৃদ্ধি রোধে এবং ভবিষ্যতের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করতে কর্মী ছাঁটাই করেছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রযুক্তিনির্ভর, সহজলভ্য, বিরতিহীন ও গ্রাহকবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে তারা নিজেদের প্রস্তুত করছে।

পাঠকদের জন্য পাঠাওর আনুষ্ঠানিক বিবৃতি তুলে ধরা হলো- ‘দেশের বৃহত্তম অন- ডিমান্ড ডিজিটাল প্লাটফরম পাঠাও ব্যবসায়িক বিকাশের নতুন যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। এর অংশ হিসেবে আমরা কতিপয় কৌশলগত নীতি অবলম্বন করছি যা আমাদের ব্যবসার মূল শাখাগুলিকে আরও শক্তিশালী করে তুলবে, দক্ষতা বৃদ্ধি করবে এবং অনাকাঙ্খিত ব্যয়বৃদ্ধি রোধে সহায়তা করবে। পরিবর্তনের এই প্রভাব পাঠাওয়ের সাংগঠনিক অবকাঠামোসহ এর ব্যবসার সর্বস্তরে মৌলিক ও গুরুত্বপূর্ণ রূপান্তর ঘটাবে।

আমরা এমন একটি ভবিষ্যতের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করছি যেখানে আমাদের প্রতিটি সেবা হবে আরও প্রযুক্তিনির্ভর, সহজলভ্য, বিরতিহীন ও গ্রাহকবান্ধব। আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস হলো এসব নতুন ও মৌলিক পরিবর্তন পাঠাওকে বর্তমান প্রতিযোগীতা নির্ভর বাজারে দীর্ঘমেয়াদী সাফল্য এনে দিবে।

২০১৬ সালে রাজধানীতে প্রথমবারের মতো স্মার্ট ফোনভিত্তিক মোটরবাইক সার্ভিস ‘পাঠাও’ চালু হয়।

(ঢাকাটাইমস/২৬জুন/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত