বিনাখরচে ছবি পাঠান অ্যামেচার রেডিও দিয়ে

আসাদুজ্জামান, S21LE
 | প্রকাশিত : ০৮ জুলাই ২০১৯, ১২:০৪

অ্যামেচার রেডিও বা হ্যাম রেডিও দিয়ে বিনাখরচে ছবি পাঠানো ও গ্রহণ করা যায়।  এই পদ্ধতিতে বলা হয় স্লো স্ক্যান টিভি বা এসএসটিভি।  ফাস্ট স্ক্যান টিভি বা এফএসটিভি পদ্ধতিতেও রেডিও দিয়ে ছবি আদান-প্রদান করা যায়। দুর্যোগের সময় স্লো স্ক্যান টিভি বা এফএসটিভির মাধ্যমে পাওয়া ছবির মাধ্যমে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান জানা সম্ভব।  আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন থেকে ডাটা, ছবি গ্রহণ করা যায় এই পদ্ধতিতে। এছাড়াও এটি হ্যামদের কাছে এটি একটি শখ, বিনোদনের অংশ। আজ আমি আপনাদের স্লো স্ক্যান টিভির মাধ্যমে ছবি আদান-প্রদানের পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করব।

স্লো স্ক্যান টিভি দুইভাবে পরিচালনা করা যায়। এক কম্পিউটারের মাধ্যমে। দুই স্মার্টফোনের মাধ্যমে। কম্পিউটারের মাধ্যমে এসএসটিভি পরিচালনা করতে হলে সফটওয়্যার লাগবে। হ্যামদের ডেভেলপ করা অনেক ধরনের সফটওয়্যার বিনামূল্যে ডাউনলোড করার সুযোগ রয়েছে। তবে স্মার্টফোন অ্যাপের মাধ্যমে কাজটা অনেক সহজ। আমি স্মার্টফোনের মাধ্যমে হ্যাম রেডিও দিয়ে এসএসটিভি পরিচালনার সহজ পদ্ধতি জানিয়ে দিচ্ছি।

এসএসটিভি পরিচালনার জন্য আপনাকে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) এর লাইসেন্সপ্রাপ্ত অ্যামেচার রেডিও বা হ্যাম রেডিও অপারেটর হতে হবে। বিটিআরসি প্রতিবছর পরীক্ষার মাধ্যমে অ্যামেচার রেডিও লাইসেন্স ইস্যু করে।  আপনার থাকতে হবে বৈধ অ্যামেচার রেডিও সেট। হতে পারে সেটা ওয়াকিটকি বা বেজ রেডিও। সব ধরনের হ্যাম রেডিও দিয়েই স্লো স্ক্যান টিভি পরিচালনা করতে পারবেন। 

এরপর আপনার অ্যানড্রয়েড ফোনের প্লে স্টোর থেকে দুইটি অ্যাপ নামাতে হবে। একটি ছবি পাঠানো বা এনকোডিংয়ের জন্য। আরেকটি লাগবে অন্য একটি অ্যামেচার রেডিও স্টেশন থেকে পাঠানো ছবি গ্রহণ বা ডিকোডিংয়ের জন্য। একাজে সারা বিশ্বে হ্যামদের কাছে জনপ্রিয় অ্যাপস হলো ‘এসএসটিভি এনকোডার’ এবং ‘রোবট৩৬’। ‘এসএসটিভি এনকোডার’ অ্যাপটি দিয়ে স্মার্টফোনে তোলা যেকোনো ছবি রেডিওর মাধ্যমে অন্য স্টেশনগুলোয় ট্রান্সমিট করতে বা পাঠাতে পারবেন। অন্যদিকে ‘রোবট৩৬’ অ্যাপ দিয়ে অন্য স্টেশন থেকে ট্রান্সমিট হওয়া বা পাঠানো ছবি গ্রহণ করে দেখতে পারবেন। 

এসএসটিভির মাধ্যমে যে হ্যাম ফ্রিকোয়েন্সিতে ছবি পাঠাতে চান সেই ফ্রিকোয়েন্সি রেডিওতে টিউন করুন। ধরুন আপনি হ্যামদের ইউএইচএফ ফ্রিকোয়েন্সি ৪৩৩.৫০০ মেগাহার্জ এ রেডিও টিউন করলেন। রেডিওর পুশ টু টক (পিটিটি) বাটন চেপে ধরুন। এবার স্মার্টফোন থেকে এসএসটিভি এনকোডার অ্যাপটি অন করে স্মার্টফোনে আগে থেকে তোলা ছবি অ্যাপ থেকে চালু করে প্লে বাটনে ক্লিক করুন। দেখবেন টি টি টি শব্দ হচ্ছে। ছবিটি ট্রান্সমিট শুরু হয়ে গেছে। ট্রান্সমিট শেষ হলে টি টি টি শব্দ বন্ধ হয়ে যায়। টি টি টি শব্দ বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত রেডিওর পিটিটি বাটন চেপে ধরে রাখুন। ব্যস, ছবি ট্রান্সমিট হয়েছে। আপনার পাঠানো ছবি অন্য কোনো স্টেশন যদি ক্যাপচার করতে চায় তবে তাকে ‘রোবট ৩৬’ এর মতো ডিকোডিং অ্যাপ চালু রাখতে হবে। এবং স্মার্টফোনটি রেডিওর পাশেই রাখতে হবে। 

অন্যদিকে আপনি যদি অন্য কোনো অ্যামেচার রেডিও স্টেশন থেকে স্লো স্ক্যান টিভির মাধ্যমে পাঠানো ছবি গ্রহণ করতে চান হবে ‘রোবট ৩৬’ অ্যাপটি ফোনে অন করে রাখতে হবে। আর ফোনের পাশেই রেডিওটি অন করে টিউন করতে হবে। অন্য স্টেশন থেকে ছবি পাঠানো শুরু হলে রেডিওতে টি টি টি শব্দ করবে। যেটা অ্যাপ ডিকোডিং করে আপনাকে ইমেজ হিসাবে দেখাবে। 

একইভাবে সফটওয়্যারের মাধ্যমে ডেস্কটপ বা ল্যাপটপ কম্পিউটার দিয়ে স্লো স্ক্যান টিভি পরিচালনা করা যায়। এই পদ্ধতি একটু জটিল। কিন্তু এতে ভালো মানের ইমেজ পাওয়া যায়। কেননা, ফোনে এনকোডিং এবং ডিকোডিং অ্যাপ চালু করার সময় ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েজও ট্রান্সমিট ও রিসিভ হতে থাকে। ৭৩।

(ঢাকাটাইমস/৮জুলাই/এজেড) 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :