ঢাবিতে দ্রুত ফল ও সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা চালুর দাবি

ঢাবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ জুলাই ২০১৯, ১৯:২৪

যথাসময়ে ইনকোর্স ও ফাইনাল পরীক্ষার ফল প্রকাশ এবং সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা পদ্ধতি চালুর দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মৌন মিছিল এবং অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এই অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়।

অবস্থান কর্মসূচি থেকে লিখিত পরীক্ষা শেষ হওয়ার দুই মাসের মধ্যে ফল প্রকাশ এবং অকৃতকার্যদের ছয় সপ্তাহের মধ্যে সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানিয়ে তারা ইতিমধ্যেই গণস্বাক্ষরসহ বিভাগ এবং অনুষদ কর্তৃপক্ষ বরাবর কয়েকবার আবেদন জানিয়েছেন। কিন্তু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাদের দাবি মেনে নেওয়ার ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। তাই তারা বাধ্য হয়ে আজকের এই কর্মসূচি পালন করেন।

কর্মসূচিতে শিক্ষার্থীরা এই বছরেই বিজ্ঞান অনুষদে সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা পদ্ধতি চালুর দাবি জানান। দাবি মেনে নেওয়া না হলে কঠোর আন্দোলনেরও হুমকি দেন তারা।

অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে গণিত বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী এবং ড. মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ হল ছাত্র সংসদের ভিপি  হুসাইন আহমেদ সোহান বলেন, লিখিত পরীক্ষা শেষ হওয়ার ছয় মাস কিংবা সাত মাসের মাথায় রেজাল্ট প্রকাশ কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্যা হতে পারে না। একটা বিশ্ববিদ্যালয়ের যেমন শিক্ষার্থীদের জন্য নিয়মকানুন আছে ‍শিক্ষকদের জন্যও তেমন নীতিমালা থাকা উচিত।

তিনি লিখিত পরীক্ষা শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ পাশাপাশি রি-এডমিশন সমস্যা সমাধানের জন্য অবশ্যই সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা পদ্ধতি চালুর দাবি জানান।

এই কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের দাবির সাথে একাত্মতা পোষণ করেন ডাকসুর এজিএস সাদ্দাম হোসাইন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাশ এবং ছাত্র ইউনিয়ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ।

পর শিক্ষার্থীরা মিছিল সহকারে সাদ্দাম হোসাইন এবং সনজিত চন্দ্র দাশের নেতৃত্বে ভিসি বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন।

স্মারকলিপি গ্রহণ শেষে উপাচার্য বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের দাবি শুনেছি। আমরা এই বিষয়ে ডিনস কমিটির সাথে আলোচনা করে আগস্টের মধ্যে একটা নীতিমালা প্রকাশ করব।

(ঢাকাটাইমস/১৭জুলাই/এমআই/জেবি)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :