‘ছেলে ধরা’ সন্দেহে নারীকে হত্যার ঘটনায় আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ জুলাই ২০১৯, ০৯:১০

রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় ছেলে ধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রুনু নামে এক নারীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় তিন যুবককে আটক করেছে পুলিশ। ভিডিও ফুটেজ দেখে রবিবার রাতে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন জাফর, বাপ্পী এবং শাহিন। তাদের বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম তিনজনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ওসি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন যুবককে বাড্ডা থেকে আটক করা হয়েছে।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি ভাইরাল হওয়া হৃদয় নামে অভিযুক্ত একজনকে এখনও আটক করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

গত শনিবার সকালে উত্তর বাড্ডায় ছেলে ধরা সন্দেহে গৃহবধূ তাসলিমাকে বেধড়ক পেটায় বিক্ষুব্ধ জনতা। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রথমদিকে তার নামপরিচয় জানা না গেলেও পরদিন সন্ধ্যায় ঢামেক হাসপাতালের মর্গে গিয়ে তার পরিচয় শনাক্ত করেন নিহতের ভাগ্নে ও বোন রেহানা। তারা জানায়, নিহতের নাম তসলিমা বেগম রেনু। তার ১১ বছরের এক ছেলে ও চার বছর বয়সী এক মেয়ে রয়েছে। আড়াই বছর আগে তসলিম উদ্দিনের সঙ্গে তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। এরপর থেকে ছেলেমেয়েকে নিয়ে মহাখালী ওয়্যারলেস এলাকায় একটি বাড়িতে থাকতেন। দুই বছর ধরে স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়া এই নারী গত শনিবার স্কুলে গিয়েছিলেন তার চার বছরের মেয়েকে ভর্তির বিষয়ে কথা বলতে। এরপর ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত হন।

ওই ঘটনায় শনিবার বাড্ডা থানায় অজ্ঞাত ৪০০ থেকে ৫০০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন নাসির উদ্দিন।

ঢাকাটাইমস/২২এপ্রিল/এএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :