বাংলাদেশিকে হত্যার পর লাশ নিয়ে গেল বিএসএফ

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:১২

চুয়াডাঙ্গার রাজাপুর সীমান্তে বিএসফের গুলিতে এক বাংলাদেশি নাগরিক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম নাজিম উদ্দীন। তিনি চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আকুন্দবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা।

বুধবার মধ্যরাতে গরু আনতে সীমান্তের পিলারের কাছে গেলে বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাকে গুলি করে হত্যা করে। হত্যার পর লাশটি তারা নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানায়, রাতে নাজিমসহ বেশ কয়েকজন গরু ব্যবসায়ী সীমান্তে গরু আনতে যায়। তারা যখন রাজাপুর সীমান্তের ৭৪ নং পিলারের কাছাকাছি পৌঁছে, তখন বিএসএফের সদস্যরা তাদেরকে ধাওয়া করে। বিএসএফের ধাওয়ায় নজিমের সহযোগীরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হয়। কিন্তু বিএসএফের গুলিতে নিহত হয় নাজিম। পরে তার লাশ টেনে -হেচঁড়ে ভারতের গেদে আমতলা বিএসএফ ক্যাম্পের ১ নং গেটে ফেলে রাখা হয়।

জীবননগর উপজেলার সিংনগর গ্রামের বাসিন্দা আনু হালদার জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে ভারতের গেদে আমবাগান বিএসএফ ক্যাম্পের অদূরে এক বাংলাদেশির লাশ পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

ঝিনাইদহ খালিশপুর ৫৮ বিজিরি পরিচালক কামরুল হাসান জানান, স্থানীয় গ্রামবাসীর মাধ্যমে এক বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যুর খবর শুনেছি। প্রকৃত ঘটনা জানতে বিজিবির পক্ষ থেকে পতাকা বৈঠকের আমন্ত্রণ জানিয়ে বিএসএফকে পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিএসএফ কোন উত্তর দেয়নি।

(ঢাকাটাইমস/০৫সেপ্টেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :