বগুড়ায় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীকে দলবেঁধে ‘ধর্ষণ’

বগুড়া প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:০৪

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলায় এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার রাতে উপজেলার সান্তাহার শহরের তিয়রপাড়ায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ওই নারীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশ একজনকে আটক করেছে।

এ বিষয়ে সান্তাহার ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ফেরদৌস আলী জানান, ওই নারী একটি পর্যটন কেন্দ্রে পান-সিগারেটসহ বিভিন্ন পণ্যের দোকান দিয়ে ক্ষুদ্র ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করেন। সন্ধ্যায় দোকান বন্ধ করে চাচাতো ভাই সুজন আলীকে সাথে নিয়ে শহরের পাশে কাশিমালা গ্রামে তার অসুস্থ ফুফুকে দেখতে যাচ্ছিলেন। তাদের বহন করা ভ্যান সন্ধ্যা সাতটার দিকে শহরের তিয়রপাড়া খাড়ির সেতুতে পৌঁছার পর সেখানে অবস্থান করা ১২ থেকে ১৪ জন যুবক ভ্যান আটকিয়ে যাত্রী সুজন এবং ভ্যানচালক রকিকে ধরে টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। এর পর মারধর শুরু করলে তারা পালিয়ে যায়। তখন বখাটেরা ভ্যানের অপর ওই ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নারীর নিকট থেকে কয়েক হাজার টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়ার পর ভ্যান থেকে টেনে হিঁচরে নেমে নিয়ে খাল পাড়ের নির্জন স্থানে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে অজ্ঞাত পরিচয়ের ব্যক্তির ফোনের মাধ্যমে খবর পেয়ে ওই নারীর স্বজনরা রাতের আঁধারে ওই স্থানে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে দমদমা গ্রামের নিকট খালের বাঁধ থেকে ওই নারীকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে একজন পল্লী চিকিৎসকের মাধ্যমে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সান্তাহার শহরের পাশের নওগাঁ আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা।

সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আনিছুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে একজনকে আটক করা হয়েছে। তিনি মামলার তদন্ত ও ঘটনার সাথে জড়িত অপর অপরাধীদের আটকের স্বার্থে আটক যুবকের পরিচয় জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

(ঢাকাটাইমস/৯সেপ্টেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত