২০২৩ সাল পর্যন্ত ম্যানইউতে ডি গিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:০৩

অবশেষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাথে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন তারকা গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়া। ক্লাবের পক্ষ থেকে এই ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে ডি গিয়ার ভবিষ্যত নিয়ে সাম্প্রতিক আলোচনার অবসান হলো।

২৮ বছর বয়সী এই স্প্যানিশ গোলরক্ষককে ঘিড়ে বেশ কিছুদিন যাবতই রিয়াল মাদ্রিদে যাবার বিষয়টি ক্লাব ফুটবলে জোড়েসোরেই আলোচনা হচ্ছিল। কিন্তু নতুন করে ইউনাইটেডের সাথে চার বছরের চুক্তি সেই সম্ভাবনাকে শেষ করে দিয়েছে। ইউনাইটেডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এ সম্পর্কে বলা হয়েছে, ‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাথে নতুন করে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন ডি গিয়া। নতুন চুক্তি অনুযায়ী ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত তিনি ইউনাইটেডেই থাকবেন।’

সাবেক ম্যানেজার আলেক্স ফার্গুসন ২০১১ সালে ১৮.৯ মিলিয়ন পাউন্ডে এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ থেকে ডি গিয়াকে ইউনাইটেডে নিয়ে এসেছিলেন। এরপর থেকে তিনি রেড ডেভিলসদের হয়ে ৩৬৭টি ম্যাচ খেলেছেন।

নতুন চুক্তি সম্পর্কে ডি গিয়া বলেছেন, ‘অসাধারণ একটি ক্লাবের সাথে আট বছর থাকতে পারাটা সত্যিই সৌভাগ্যের। আরো কিছুদিন এখানে থাকতে পারার সুযোগ পেয়ে আমি গর্বিত। যখন এখানে এসেছিলাম তখন ভাবতেই পারিনি ৩৫০’র উপরে ম্যাচ খেলতে পারব। এখন আমার ভবিষ্যত নিশ্চিত। আমরা যা বিশ্বাস করি ক্লাবের হয়ে সেটা অর্জনে দলকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার চেষ্টা করবো। সবাই একসাথে আবারো শিরোপা জিততে চাই।’

ডি গিয়া যখন যোগ দিয়েছিলেন তখন চার বছরে তৃতীয়বারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে খেলেছিল ইউনাইটেড। এরপর বেশ কয়েকজন নতুন ম্যানেজারের অধীনে ক্লাবের ভাগ্য অনেকটা ব্যর্থতার মধ্যেই বন্দী ছিল। যদিও ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আসার পর ইউনাইটেডের হয়ে ডি গিয়া প্রিমিয়ার লিগ, এফএ কাপ, লিগ কাপ ও ইউরোপা লিগ জয় করেছেন।

বর্তমান ম্যানেজার ওলে গানার সুলশারও দীর্ঘ সময়ের জন্য ডি গিয়াকে দলে পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেছেন, ‘গত কয়েক বছরে ডি গিয়া নিজেকে বিশ্ব সেরা প্রমাণ করেছে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ভবিষ্যত পরিকল্পনায় সে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ ছিল। ব্যক্তি হিসেবেও সে দুর্দান্ত। সব মিলিয়ে ইউনাইটেডের ভবিষ্যতের জন্য তার মত একজন খেলোয়াড় খুব জরুরি ছিল।’

স্পেনের জাতীয় দলের হয়ে এ পর্যন্ত ৪০টি ম্যাচ খেলেছেন ডি গিয়া। ২০১৫ সালে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেবার একেবারে দ্বারপ্রান্তে চলে আসলেও কাগজ পত্র তৈরীতে দেরী হওয়ায় দলবদলের তারিখ পার হয়ে যায়। আগামী জানুয়ারিতে যে কোন ইউরোপীয়ান ক্লাবের সাথে আলোচনা করতে সে উন্মুক্ত হয়ে যেত এবং গ্রীষ্ম মৌসুমে তাকে নিতে যেকোন দল ফ্রি টান্সফার সুবিধা কাজে লাগাতে পারতো। গত মৌসুমের শেষে বাজে ফর্মের কারণে ডি গিয়ার ইউনাইটেডে ভবিষ্যত নিয়ে অনেকটা শঙ্কা দেখা দেয়। ষষ্ঠ স্থানে থেকে গত মৌসুম শেষ করেছিল ইউনাইটেড। আর এর কারণ হিসেবে অনেকেই ডি গিয়ার ফর্মহীনতাকে দায়ী করেছিল। সম্প্রতী স্পেন দলে তিনি চেলসি গোলরক্ষক কেপা আরিজাবালাগার কাছে নিজের অবস্থান হারিয়েছেন। যদিও চলতি মাসে ইউরো বাছাইপর্বে ছোট দল ফারো আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে তাকে জাতীয় দলে ডাকা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১৭ সেপ্টেম্বর/এসইউএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :