হিলিতে পেঁয়াজের দাম বেড়ে ৮০

হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
 | প্রকাশিত : ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২০:৩০

পূজার ছুটি শেষ হলেও ভারত সরকার রপ্তানি শুরু না করায় দিনাজপুরের হিলি স্থল বন্দরে আবারো বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। ২০/২৫ টাকা বেড়ে প্রতিকেজি পেঁয়াজ এখন বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০টাকা দরে। আর দেশি পেঁয়াজ ১০০ টাকা দরে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, হিলি স্থল বন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি সম্পূর্ণ বন্ধ রয়েছে। বিগত দিনে যে সব পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে তার বেশি ভাগ পচে নষ্ট হয়ে গেছে। নষ্টের কারণে তাদেরকে লোকসান করে খুব কম দামে বিক্রি করতে হয়েছে। বর্তমানে খারাপ পেঁয়াজও আড়তে নেই। পাশাপাশি তাদের কাছে যে পরিমাণ ভালো মন্দ পেঁয়াজ ছিল সেগুলিও তারা দুতিন দিন আগে ৫০ থেকে ৫৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করে গোডাউন ফাঁকা করে বসে আছেন।

এদিকে হিলি স্থল বন্দরের মাধ্যমে আমদানিকৃত পেঁয়াজ উত্তর বঙ্গের চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হয়ে থাকলেও এখন বন্দর এলাকায় পেঁয়াজের সংকট চলছে। নতুন করে কোনো পেঁয়াজ আসছে না বাহিরে থেকে। ১০ দিন আগে অর্থাৎ পুরোনো এলসি আমদানি করা প্রায় ১ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানির পর আর কোনো পেঁয়াজ আমদানি হয়নি ভারত থেকে। 

হিলি স্থল বন্দরের আমদানি রপ্তানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক হারুন উর রশিদ জানান, দুর্গা পুজার কারণে হিলি স্থল বন্দর দিয়ে সাত দিন আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ ছিল। তারা ধারণা করছিলেন পূজার ছুটি শেষে ভারত সরকার বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি স্বাভাবিক করে দেবে। কিন্তু তার কোনো লক্ষণ চোখে পড়ছে না। পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকলে সামনের দিন গুলিতে পেঁয়াজের দামে মারাত্মক প্রভাব পড়বে। যা ইতিমধ্যে পড়া শুরু করেছে।

অপর আমদানিকারক ব্যবসায়ী বাবলুর রহমান বলেন, হিলি স্থল বন্দরে পেঁয়াজ থাকবে না এটা কেউ ধারণা করেনি। পেঁয়াজের এ বন্দর এখন পেঁয়াজ শূন্য। তাদের কাছে যতটুকু পেঁয়াজ ছিল তা তারা কম বেশি করে বেচে দিয়েছেন। এখন কোনো পেয়াজ নেই। পেঁয়াজের অভাবে বন্দরের আড়তগুলি প্রায় বন্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, এখন ভারতে পেঁয়াজের সংকট নেই। দাম ও অনেকটা সে দেশে কমে এসেছে। বিভিন্ন প্রদেশে পেঁয়াজ উৎপাদন শুরু হয়েছে। তাই পেঁয়াজ আমদানি ও সরবরাহ ঠিক রাখতে দ্রুত সরকারকে ভারতীয় সরকারের সঙ্গে আলোচনা করা আহ্বান জানান তিনি। অন্যথায় বাজারে আরো বিরূপ প্রভাব পড়বে।

ঢাকাটাইমস/১৪অক্টোবর/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :