ঐক্যফ্রন্ট বিলুপ্তি চায় বিএনপির শরিক দল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ অক্টোবর ২০১৯, ১৩:৫২

বিএনপি ড. কামাল হোসেনদের নিয়ে অযথা সময় নষ্ট করছে এমন দাবি করেছেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলের শরিক বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান। একাদশ সংসদ নির্বাচনে ব্যর্থতার জন্য ঐক্যফ্রন্ট বিলুপ্তির দাবি জানিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার নয়াপল্টনস্থ কার্যালয়ে বাংলাদেশ লেবার পার্টির ৪২তম প্রতিষ্ঠাবাষীকিতে ‘রুখো আগ্রাসন-হটাও দুঃশাসন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এই দাবি করেন তিনি।

ইরান বলেন, কামাল-রবদের নিয়ে বিএনপি সময় নষ্ট না করে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামের প্রস্ততি নেওয়া দরকার। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা ও সরকারের ভোট ডাকাতির মোকাবেলায় চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছে। তাই নির্বাচনে সীমাহীন ব্যর্থতা, অপরিপক্কতা ও সরকারের নীলনকশা বাস্তবায়নের দায়ে ঐক্যফ্রন্টকে বিলুপ্ত করা উচিত।

ঐক্যফ্রন্ট গঠনের পর বিএনপি ২০ দলের শরিকদের সঙ্গে আগের মত মূল্যায়ন করে না বলে অভিযোগ করে শরিকরা। এমন অভিযোগকে প্রকাশ্যে এনে গত মে মাসের শুরুর দিকে বিএনপি জোট ছাড়ার ঘোষণা দেয় আন্দালিব রহমান পার্থের দল বিজেপি। এরপর সেই পথে হাঁটার হুমকি দিলেও এখনো জোটের সঙ্গে আছে বাংলাদেশ লেবার পার্টি। ঐক্যফ্রন্টের কারণে একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপি জোটের এমন পরাজয় হয়েছে বলে মনে করে লেবার পার্টি।

লেবার পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ২০ দলীয় জোটকে অকার্যকর রেখে আওয়ামী লীগকে তৃতীয় দফায় ক্ষমতাশীন করতেই কামালরা বন্ধু বেশে জাতীয়তাবাদী শক্তির ওপর সওয়ার হয়েছে। বিএনপির ৯০ ভাগ নেতা-কর্মী বিগত নির্বাচনে পরাজয় ও বেগম জিয়ার মুক্তি দীর্ঘায়িত হওয়ার কারণ ঐক্যফ্রন্টকে মনে করে।

ইরান বলেন, ভাবতে অবাক লাগে বেগম খালেদা জিয়া আজ দুইবছর মিথ্যা ও প্রতিহিংসার মামলায় কারাবন্দি। এ যাবত ঐক্যফ্রন্ট কোনো জোরালো বক্তব্য বা কার্যকর কর্মসূচি দেয়নি। বরং তারেক রহমানের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, যা হাস্যকর বটে। আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমেই বেগম জিয়া ও গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে ঐক্যবদ্ধভাবে ২০ দলীয় জোটের প্রতি দুর্বার সংগ্রাম গড়ে তোলার আহবান জানান তিনি।

লেবার পার্টির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ফারুক রহমানের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান খালেদ, এস এম ইউসুফ আলী, আমিনুল ইসলাম আমিন, মো. আলাউদ্দিন আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হুমাউন কবির, যুবমিশন আহবায়ক মোহেব্বুল্লাহ মেহেদী, সদ্য সচিব মো. সৈকত চৌধুরী, ছাত্রমিশন সভাপতি সৈয়দ মো. মিলন ও সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/২২অক্টোবর/বিইউ/এমআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :