ধানমন্ডির জোড়া খুনের ঘটনায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৩ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:৫৭

রাজধানীর ধানমন্ডিতে গৃহকর্ত্রী আফরোজা বেগম ও গৃহপরিচারিকা দিতিকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। রবিবার সকালে ধানমন্ডি থানায় মামলাটি করেন নিহত আফরোজার মেয়ে দিলরুবা সুলতানা।

ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল লতিফ ঢাকাটাইমসকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি বলেন, ‘এই ঘটনায় অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ সন্দেহভাজন গৃহপরিচারিকাকে খুঁজছে। এরই মধ্যে বিভিন্ন প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাকে আটকে চেষ্টা চলছে। তবে আজ এটা নিয়ে আপডেট কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না। আগামীকাল এটা নিয়ে বিস্তারিত বলা যাবে। আমরা মামলার স্বার্থে বেশ কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছি।’

শুক্রবার সন্ধ্যায় ধানমন্ডি ১৫ নম্বর সড়কের ২৮ নম্বর বাসার এফ-৪ ফ্ল্যাটে দুই নারীকে গলাকেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। গৃহকর্ত্রী আফরোজা বেগম শিল্পপতি ও গার্মেন্ট ব্যবসায়ী মনির উদ্দিন তারিমের শাশুড়ি।

জানা গেছে, নিহত আফরোজা বেগমের স্বামীর নাম হিরণ শেখ। তাদের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহে। এই বাড়ির চার ও পাঁচতলায় তাদের দুটি ফ্ল্যাট। চারতলার ফ্ল্যাটে থাকতেন আফরোজা ও গৃহকর্মী দিতি। উপরের ফ্ল্যাটে থাকতেন তার মেয়ে দিলরুবা সুলতানা ও জামাতা মনির উদ্দিন তারিম।

পুলিশ জানায়, ওই ফ্ল্যাটে গৃহপরিচারিকা হিসেবে শুক্রবার বিকালে নিয়োগ দেওয়া হয় এক নারীকে। নতুন কাজে যোগ দিলেও পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা নেননি গৃহকর্ত্রী আফরোজা বেগম। কারণ তার গাড়িচালকই ওই নারীকে কাজে আনেন। কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে বাড়ির গৃহকর্ত্রী ও আরেক গৃহপরিচারিকার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে ওই নারী জড়িত থাকতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ। হত্যার পর বাড়ি থেকে মোবাইল ও স্বর্ণালংকারসহ বেশ কিছু জিনিস খোয়া গেছে।

শনিবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে তাদের লাশ পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ বলেন, আফরোজা বেগমের পেটে, বুকে ছুরিকাঘাত করা হয়। এর মধ্যে একটি আঘাত তার কিডনি ভেদ করে। এতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়। আর গৃহকর্মীকেও ছুরিকাঘাত করা হয়। তবে গলাকাটার কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/০৩নভেম্বর/এসএস/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :