‘ফোরদু’ স্থাপনায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ শুরু ইরানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:৪১

ইরানের ‘ফোরদু’ পরমাণু স্থাপনায় আনুষ্ঠানিকভাবে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার কাজ শুরু করেছে ইরান। ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির নির্দেশে বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতে সেন্ট্রিফিউজের মধ্যে গ্যাস প্রবিষ্ট করার মধ্যদিয়ে এ তৎপরতা শুরু হয়েছে।

ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতায় ফোরদু স্থাপনায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের কাজ বন্ধ রাখার কথা বলা হয়েছিল। ২০১৫ সালে ওই সমঝোতা সই করার পর থেকে ইরান সে চুক্তি পালন করে আসছিল। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র একতরফাভাবে এ চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়া এবং ইউরোপীয় দেশগুলোর পক্ষ থেকে এ সমঝোতা বাস্তবায়ন করতে ব্যর্থতার কারণে তেহরান পূর্ব ঘোষণা দিয়ে ফোরদু স্থাপনার তৎপরতা আবার শুরু করল।

ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থার বিবৃতিতে বলা হয়েছে, জাতিসংঘের পরমাণু তদারকি বিষয়ক সংস্থা আইএইএর পরিদর্শকদের উপস্থিতিতে ফোরদু স্থাপনায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের প্রক্রিয়া আবার শুরু হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি এর আগে বলেছিলেন, পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী সব পক্ষের জানা উচিত তেহরান একা এই সমঝোতা মেনে চলতে পারে না। ফোরদু স্থাপনার এই নয়া কার্যক্রম আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএর তত্ত্বাবধানে অব্যাহত থাকবে এবং অতীতের ধাপগুলোর মতো চতুর্থ ধাপেও আগের অবস্থায় ফিরে যাওয়ার সুযোগ থাকছে।

যুক্তরাষ্ট্র ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বের হয়ে যাওয়ার এক বছর পর ২০১৯ সালের ৮ মে তেহরান এই সমঝোতার ২৬ ও ৩৬ নম্বর ধারা মেনে নিজের দেয়া প্রতিশ্রুতি পালন স্থগিত করে। ইউরোপের পক্ষ থেকে এ সমঝোতা রক্ষা করার জন্য ইরানকে অনেকগুলো প্রতিশ্রুতি দেয়া হলেও তা বাস্তবায়িত না হওয়ায় তেহরান ওই পদক্ষেপ নেয়।

এরপর থেকে এ পর্যন্ত ইরান চার দফায় ইউরোপকে ৬০ দিন করে সময় দিয়ে চার দফা পরমাণু সমঝোতার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন স্থগিত রেখেছে। ইরানের দেয়া পরবর্তী ৬০ দিন সময়ের মেয়াদ আগামী ৬ জানুয়ারি শেষ হবে। ওই তারিখের আগে ইউরোপ তাদের প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে না পারলে ইরান পঞ্চম দফা পদক্ষেপ নেবে এবং সে পদক্ষেপ আগের চার দফার চেয়ে তীব্র হবে বলে জানিয়েছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্বাস মুসাভি।

ঢাকা টাইমস/০৭নভেম্বর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :