সড়ক আইন কারও ক্ষতি করবে না: কাদের

গাজীপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:৩৭ | প্রকাশিত : ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:৩১

ধর্মঘট না করে নতুন সড়ক আইন মেনে চলতে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তাদের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, তারা ধর্মঘট করে মানুষকে যাতে কষ্ট না দেন।  এ আইন কারও ক্ষতি করবে না কিংবা প্রয়োগে বাড়াবাড়ি করা হবে না।

আজ মঙ্গলবার বিকালে গাজীপুর শহরের শহীদ বরকত স্টেডিয়ামে গাজীপুর মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন সড়কমন্ত্রী।

আইন ভঙ্গের শাস্তির পরিমাণ বাড়িয়ে নতুন সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ গত ১ নভেম্বর থেকে কার্যকর হয়। তবে আইনটি সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সচেতন করার জন্য গত ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত এটি শিথিল রাখা হয়েছিল। গতকাল সোমবার (১৮ নভেম্বর) থেকে এই আইন সড়কে কার্যকর হয়। নতুন আইনে শাস্তির মাত্রা বেশি হয়েছে দাবি করে দেশের বিভিন্ন স্থানে পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা ধর্মঘট করছেন।

কাউকে শাস্তি দেওয়ার জন্য নয়, সড়কে শৃঙ্খলা ও জনস্বার্থে এ আইন করা হয়েছে বলে জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘সড়কের যে আইন হয়েছে সে জন্য আমি পরিবহন মালিক, শ্রমিক, ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দকে অনুরোধ জানাব আইনটি মেনে চলুন।’

‘জনগণের স্বার্থে, আপনাদের নিজের স্বার্থে সড়কে আজ শৃঙ্খলা দরকার। এ আইন সড়কের শৃঙ্খলার জন্য, কাউকে শাস্তি দেয়ার জন্য নয়। শেখ হাসিনা সড়কের আইন করেছেন কাউকে শাস্তি দিতে নয়। আইনের প্রয়োগ বাড়াবাড়ি হবে না।

দেশে লবণের দাম নিয়ে অস্থিরতার আশঙ্কা নিয়েও কথা বলেন সড়ক পরিবহন মন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘লবণ নিয়ে অনেকে কারসাজি শুরু করেছে খবর পাচ্ছি। সিন্ডিকেট ভেঙে দিতে হবে।’

চলমান পেঁয়াজ সংকট কেটে যাচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘পেঁয়াজের দাম কমে যাচ্ছে। পেঁয়াজের দাম এখন নিয়ন্ত্রণে এসে যাচ্ছে। কয়েক দিনের মধ্যে পেঁয়াজের মূল্য স্বাভাবিক হবে।’

আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধ রাখতে স্থানীয় নেতাদের আহ্বান জানিয়ে প্রতিনিধি সভায় দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তৃণমূলে আপনাদের এক থাকতে হবে। কমিটি করতে গিয়ে পকেট কমিটি করবেন না। দুঃসময়ের ত্যাগীদের অগ্রাধিকার দিতে হবে। অনুপ্রবেশকারী ক্লিন ইমেজের লোক আওয়ামী লীগে অবশ্যই স্বাগত জানাব, কিন্তু দূষিত রক্ত আমাদের দরকার নেই।’ নেতাকর্মীদের মানুষের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করার পরামর্শ দেন তিনি।

গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক প্রতিনিধি সভায় সভাপতিত্ব করেন। গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দি, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, সিমিন হোসেন রিমি এমপি, গাজীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাবেক এমপি আখতারউজ্জামান, ইকবাল হোসেন সবুজ এমপি, মেহের আফরোজ চুমকি এমপি, সামসুন্নাহার এমপি প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/১৯নভেম্বর/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :