‘নো’ বল ডাকবেন তৃতীয় আম্পায়ার

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৩১ | প্রকাশিত : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:২১

ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকেই অভিনব এক নিয়ম চালু করতে চলেছে আইসিসি। বৃহস্পতিবার তারা জানিয়ে দিয়েছে, এই সিরিজ থেকেই বোলারদের ফ্রন্ট ফুট নো বলের ক্ষেত্রে মাঠের আম্পায়াররা নন, সিদ্ধান্ত নেবেন তৃতীয় আম্পায়ার।

শুক্রবার (০৬ ডিসেম্বর) হায়দ্রাবাদে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নামছে ভারত। যে ম্যাচ থেকেই পরীক্ষামূলক ভাবে এই নিয়ম চালু করতে চলেছে আইসিসি।

এক বিজ্ঞপ্তিতে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা বলেছে, ‘পরীক্ষাস্তরে এই নিয়ম চালু হচ্ছে। টিভিতে প্রতিটা বলের উপরে নজর রাখবে তৃতীয় আম্পায়ার। তাদের উপরে দায়িত্ব থাকবে দেখার কোনও ফ্রন্টফুট নো বল হচ্ছে কি না।’

ফ্রন্টফুট নো বলের নিয়ম হল, বল ডেলিভারি করার সময় বোলারের সামনের পায়ের কোনও অংশ পপিং ক্রিজের লাইনের ভিতরে থাকতে হবে। যদি না থাকে, তা হলে সেটা নো বল। টিভি-তে সেটাই দেখবেন তৃতীয় আম্পায়ার।

যদি দেখা যায় বোলার নো বল করেছেন, তা হলে কী হবে? আইসিসি বলেছে, ‘যদি তৃতীয় আম্পায়ার দেখে ফ্রন্টফুট নো বল হয়েছে, তা হলে তিনি সঙ্গে সঙ্গে সেটা মাঠের আম্পায়ারকে জানাবেন। তৃতীয় আম্পায়ারের পরামর্শ মতো মাঠের আম্পায়ার এর পরে নো বল ডাকবেন। তৃতীয় আম্পায়ারের পরামর্শ ছাড়া মাঠের আম্পায়াররা নো বল ডাকতে পারবেন না।’

আর যদি পরিষ্কার ভাবে বোঝা না যায় বোলারের পা পপিং ক্রিজের ভিতরে আছে কি না, তা হলে কী হবে? এর জবাবে আইসিসি বলছে, ‘সন্দেহের অবকাশ থাকলে নো বল ডাকা হবে না।’

এ বছরের আগস্টে সিদ্ধান্ত হয়েছিল, নো বল ডাকার ক্ষেত্রে তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে। আইসিসি ক্রিকেট কমিটিও সুপারিশ করে, যত বেশি সম্ভব সীমিত ওভারের ক্রিকেটে এই নিয়ম ব্যবহার করতে। এ বার আইসিসি দেখতে চায়, এই নিয়ম চালু করলে ক্রিকেট উপকৃত হয় কি না। আরও একটা ব্যাপারে নজর দিতে চায় আইসিসি। এই ভাবে নো বল ডাকায় যাতে ম্যাচ চলাকালীন বিশেষ সময় নষ্ট না হয়।

(ঢাকাটাইমস/০৬ ডিসেম্বর/এআইএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :