রাজশাহীতে নির্বাচনী সহিংসতা

যুবলীগ নেতা হত্যার দুই আসামি গ্রেপ্তার

ব্যুরো প্রধান, রাজশাহী
 | প্রকাশিত : ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২:২৪

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন হত্যা মামলার দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে উপজেলার কমলাপুর গ্রাম থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে গোদাগাড়ীর প্রেমতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের একটি দল। আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি ছিলো।

গ্রেপ্তার দুই আসামি হলেন- গোদাগাড়ীর মালিগাছা গ্রামের রায়হান আলীর ছেলে বসির উদ্দিন ওরফে বাবু (৩৪) ও গড়ডাইং গ্রামের মো. তসিরের ছেলে মো. কালাম (৩৯)। বাবু মামলার ২৮ নম্বর আসামি। আর কালাম ৩৫ নম্বর। এ মামলার চার আসামি এখনও পলাতক।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) পুলিশ পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, গ্রেপ্তার দুই আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে মোট আটজন আসামি এখন কারাগারে। মামলায় মোট আসামির সংখ্যা ৩৫ জন। এদের মধ্যে জামিনে আছেন ২৩ জন। বাকি চারজন পলাতক। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

নিহত ইসমাইল হোসেন গোদাগাড়ীর দেওপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি ছিলেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি ওই ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। গেল বছরের ৩০ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণের দিন বিএনপি-জামায়াতের কর্মীরা পালপুর ভোটকেন্দ্র দখলে নিতে গেলে বাধা দিতে যান ইসমাইল।

এ সময় তাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করা হয়। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় তার স্ত্রী বিজলা বেগম বাদী হয়ে গোদাগাড়ী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। বিজলা বেগম জানান, গত ১১ সেপ্টেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। তবে তিনি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্বামী হত্যার বিচার দাবি করেন।

ঢাকাটাইমস/১১ডিসেম্বর/ইএস

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :