ভারতের সঙ্গে সম্পর্কে টানাপোড়েন হোক চাই না: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৩:৪৫ | প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৩:০৮

ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কে টানাপোড়েন হোক সরকার তা চায় না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

কাদের বলেছেন, ‘ভারতের সঙ্গে আমাদের বাইলেটারেল রিলেশন খুব ভালো। ইতিবাচক সম্পর্ক আছে। এ সম্পর্কে কোনো টানাপোড়েন সৃষ্টি হোক সেটা আমরা চাই না।’

রবিবার রাজধানীর গুলিস্তানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলটির ২১তম জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে স্বেচ্ছাসেবক ও শৃঙ্খলা উপকমিটির সভা শেষে এসব কথা বলেন তিনি।

দিল্লি ডায়ালগ ও ইন্ডিয়ান ওশান ডায়ালগ উপলক্ষে তিন দিনের সফরে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভারতের উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা ছিল পররাষ্ট্রমন্ত্রীর। তার আগে দুপুরে হঠাৎ করেই তার সফর বাতিলের কথা জানায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

আর দেশটির মেঘালয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমার আমন্ত্রণে শুক্রবার বেলা ১১টায় সিলেটের তামাবিল হয়ে মেঘালয়ে যাওয়ার কথা ছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের। তার আগের দিন রাতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু মন্ত্রীর সফর স্থগিতের কথা জানান।

ভারতে নাগরিকত্ব বিল পাসের একদিন পর বাংলাদেশের দুজন প্রভাবশালী মন্ত্রীর ভারত সফর বাতিল ও স্থগিতের বিষয়টি ভারতের সঙ্গে সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারে বলে ধারণা করেন বিশ্লেষকরা।

২১তম জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে রবিবার স্বেচ্ছাসেবক ও শৃঙ্খলা উপকমিটির সভা শেষে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘এনআরসির বিষয়টি আমরা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। ভারত আমাদের প্রতিবেশী দেশ। একটা সার্বভৌম, স্বাধীন দেশ। ভারতের পার্লামেন্টে যে আইন পাস হয়, লোকসভায় ও রাজ্যসভায় সেটা তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এর প্রতিক্রিয়া কী হতে পারে, সে ব্যাপারে আমাদের বক্তব্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ভারতের হাইকমিশনারের মাধ্যমে জানিয়ে দিয়েছে। বিষয়টি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেখছে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘যদি কোনো সমস্যা হয় তাহলে আমরা আলাপ-আলোচনা করে সমাধান খুঁজে নেব। ভারতের সঙ্গে আমাদের বাইলেটারাল আলোচনার সুযোগ আছে। এ সম্পর্কে কোনো টানাপোড়েন সৃষ্টি হোক সেটা আমরা চাই না।’

আসন্ন জাতীয় সম্মেলন স্মরণকালের সবচেয়ে বড় সম্মেলন হতে যাচ্ছে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন ওবায়দুল কাদের।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে  শৃঙ্খলা উপকমিটিতে দুই হাজার লোক দায়িত্ব পালন করবে। স্মরণকালের সর্ববৃহৎ সম্মলেন হবে এটি। শৃঙ্খলার দিক থেকেও স্মরণীয় হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে উপকমিটির সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

ঢাকাটাইমস/১৫ডিসেম্বর/টিএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :