উন্নত জীবনের জন্য আসুন কানাডায়

কানাডা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৩৬ | প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৩৩

উত্তর আমেরিকার সুবিশাল দেশ কানাডা। আয়তনে রাশিয়ার পর দেশটির অবস্থান। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশটির লোকসংখ্যা কত জানেন? ৪ কোটিও কম। পাশ্চাত্যের অন্যান্য দেশের মতো কানাডায়ও জন্মহার অত্যন্ত কম। তাই ক্রমেই বুড়োদের দেশে পরিণিত হচ্ছিলো উত্তর আমেরিকার এ দেশটি। তবে কানাডা সরকার জনসংখ্যায় ভারসাম্য আনতে খুবই তৎপর। যে কারণে ইমিগ্র্যান্ডদের জন্য দুয়ার খুলে দিয়ে রেখেছে জাস্টিন ট্রুডোর সরকার। প্রতি বছর অন্তত পাঁচ লাখ ইমিগ্র্যান্ড আসছেন কানাডাতে। সারা দুনিয়ার ইমিগ্র্যান্ডনদের স্বর্গরাজ্য বলা হয় কানাডাকে। গত বছর শুধু ভারত থেকে আড়াই লাখ ছাত্র এসেছেন এখানে পড়াশোনা করতে।

বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ডরাও আসছেন প্রচুর। বর্তমানে প্রায় সোয়া লাখ বাংলাদেশি বসবাস করছেন কানাডাতে। টরেন্টো ও মন্ট্রিলেই বেশিরভাগ বাংলাদেশি বসবাস করেন। শান্তি, নিরাপত্তা ও উন্নত জীবনের জন্য আপনিও আসুন কানাডাতে।

পড়াশোনা, স্কিল ভিসা, ইমিগ্র্যান্ড ভিসা, আরও অনেক উপায়ে কানাডাতে আসার সুযোগ রয়েছে।  আপনার নিজের যোগ্যতা সম্পর্কে আপনিই সবচেয়ে ভালো জানেন। সে অনুযায়ী নিজেকে ক্যাটাগরিতে ফেলুন এবং  অগ্রসর হন।

প্রতি বছর লাখ লাখ মানুষ কানাডাতে আসলেও কাজের ক্ষেত্র নিয়ে চিন্তা করার কোনো কারণ নেই। প্রচুর কাজের সুযোগ রয়েছে এখানে। নতুন নতুন কাজের ক্ষেত্র তৈরি করছে কানাডা সরকার। সুবিশাল দেশটিতে আরও প্রচুর লোক দরকার। শুধু এশিয়া আফ্রিকা ও দক্ষিণ আমেরিকা থেকেই নয়, বেটার লাইফের জন্য ইউরোপ থেকেও প্রচুর ইমিগ্র্যান্ড আসছেন কানাডার শান্তিময় ও নিরিবিলি জীবনযাপনের লোভে।

কানাডা অবশ্য বেশ ব্যয়বহুল। বাসা ভাড়া ও খাদ্যদ্রব্যর দাম  ইউরোপ আমেরিকার চেয়ে এখানে কিছুটা বেশি। কিন্তু এতে বিচলিত হওয়ার কারণ নেই। ইউরোপের চেয়ে  এখানে কাজের ক্ষেত্রও বেশি। কাজ পেতে খুব একটা বেগ পেতে হবে না আপনাকে। কাজ না থাকলে সরকারি সাহায্যও পেতে পারেন আপনি।

এখানে বড্ড শীত। জানুয়ারিতে তাপমাত্রা মাইনাস ৩০ ডিগ্রিতে নেমে যায়। তাই নতুনদের জন্য প্রথমদিকে বেশ কঠিন হয়ে পড়ে নিজেদের খাপ খাইয়ে নিতে। তবে সময়ের সঙ্গে সব কিছু ঠিক হয়ে যায়। বাংলাদেশে আপনি হয়তো ১০ ডিগ্রি তাপমাত্রাতে কাহিল হয়ে পড়েন, কিন্তু সেই আপনি এক সময় মাইনাস ১০/২০ ডিগ্রিতে কানাডার রাস্তায় গরম কাপড় করে দিব্যি হাঁটাচলা করছেন। মানুষ তো অভ্যাসেরই দাস।

তাই এখন থেকেই পরিকল্পনা করুন। শান্তিময়, নিরিবিলি ও উন্নত জীবনের জন্য আসুন কানাডায়। ভালোলাগার দেশ কানাডা।

ঢাকাটাইমস/১৬ডিসেম্বর/ডিএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রবাসের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :