গ্র্যাজুয়েট ছাড়া ফাজিল মাদ্রাসার সভাপতি নয়: হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ জানুয়ারি ২০২০, ২২:৪৫

দেশের কোনো ফাজিল (স্নাতক) মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি হতে চাইলে গ্র্যাজুয়েট পাস হতে হবে। এই শিক্ষাগত যোগ্যতার নিচের কেউ এসব প্রতিষ্ঠানের সভাপতি হতে পারবেন না মর্মে রায় দিয়েছে হাইকোর্ট।

এ বিষয়ে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ  মঙ্গলবার রায় ঘোষণা করেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ুন কবির। তাকে সহযোগিতা করেন অ্যাডভোকেট মুনতাসীর শাহীন ও অ্যাডভোকেট মো. আল-আমিন।

আদালত রায়ে আরও বলেছে, প্রতিষ্ঠানপ্রধান প্রথমে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির কাছে স্নাতক ডিগ্রিধারী তিনজন ব্যক্তির নাম পাঠাবেন। তিনজনের মধ্যে থেকে ভিসি একজনকে সভাপতি পদে  মনোনীত করবেন। কিন্তু ডিও লেটারে কেউ সভাপতি হলে সেটা বাতিল হয়ে যাবে।

একই সঙ্গে বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলার কালিশ পুনাইল হামিদিয়া ফাজিল মাদ্রাসার সভাপতি পদে সাংসদের ডিও লেটারধারী  মো. বেলাল হোসাইন বাবলুকে মনোয়ন দেওয়ায় তার সভাপতি পদ বাতিল করেছে হাইকোর্ট।

হুমায়ুন কবির জানান, ২০১৮ সালের ৮ মার্চ বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলার কালিশ পুনাইল হামিদিয়া ফাজিল মাদ্রাসার সভাপতি পদে এমপির ডিও লেটারধারী মো. বেলাল হোসাইন বাবলুকে মনোনয়ন দেয় ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়। শুধু তার নাম সুপারিশ করে ভিসির কাছে পাঠিয়েছিলেন প্রতিষ্ঠানপ্রধান।

পরে বেলাল হোসাইন বাবুলকে সভাপতি পদে মনোয়ন দেওয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন ওই মাদ্রাসার অভিভাবক সদস্য আরিফুল ইসলাম। ২০১৮ সালের ৮ এপ্রিল হাইকোর্ট রুল জারি করে। রুলের শুনানি শেষে আদালত আজ  রায় দেয়। তাতে বলা হয়, গ্রাজুয়েট ব্যক্তি ছাড়া (ডিগ্রি পাসের নিচে নয়) কেউ দেশের কোনো ফাজিল-কামিল (স্নাতক) মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি হতে পারবেন না।

(ঢাকাটাইমস/২১জানুয়ারি/এআইএম/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :