বুধবারের মধ্যে ইশতেহার প্রকাশ করবেন তাপস

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ২০:১৩ | প্রকাশিত : ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১৯:৫৫
ফাইল ছবি

আগামী ১৮ থেকে ২৯ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করবেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস।

শনিবার রাজধানীর বাবুবাজার ব্রিজের নিচে নির্বাচনী গণসংযোগ চলাকালে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তাপস।

আওয়ামী লীগের মনোনীত এ মেয়র প্রার্থী বলেন, আমরা উন্নয়নের যে রূপরেখা প্রকাশ করেছি সেটা ঢাকাবাসী সাদরে গ্রহণ করেছে। আমরা যেখানে যাচ্ছি বিপুল সাড়া পাচ্ছি। আমরা আশা করছি ২৮ অথবা ২৯ তারিখের মধ্যে বিস্তারিত নির্বাচনী ইশতেহার ঢাকাবাসীর কাছে প্রকাশ করতে পারবো।

তাপস বলেন, ‘আমাদের ৫টি রূপরেখা। আমাদের ঐতিহ্যের ঢাকা, আমাদের সুন্দর ঢাকা, সুশাসিত ঢাকা, আমাদের সচল ঢাকা এবং উন্নত ঢাকা গড়ার লক্ষ্য পহেলা ফেব্রুয়ারির নির্বাচন ঢাকাবাসী জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। এই নির্বাচনে ঢাকাবাসী তাদের রায় প্রদানের মাধ্যমে উন্নত ঢাকা গড়ার নব সূচনা, নবযাত্রা আমরা করতে চাই। আমি বিশ্বাস করি ঢাকাবাসী নৌকায় তাদের রায় দিয়ে আমাকে সেবক হিসেবে নির্বাচিত করবে। আমাদের স্ব-স্ব ওয়ার্ডে আমাদের কাউন্সিলদের নির্বাচিত আমাদের পথচলাকে বেগবান করবে।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে শেখ তাপস বলেন, আমরা গণসংযোগ করছি। ঢাকাবাসীর স্বতস্ফূর্ত সাড়া পাচ্ছি। বিপুল নেতাকর্মীসহ আমরা মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘরে ঘরে যাচ্ছি। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক লক্ষ্য করছি, আমাদের প্রতিপক্ষ শুধু অভিযোগ নিয়ে ব্যস্ত। তাদের ঢাকাবাসীর জন্য উন্নয়নের কোনো রূপরেখা নেই। ঢাকাবাসীর মানোন্নয়নে কোনো কার্যক্রম নেই। তারা শুধু জাতীয় রাজনীতি নিয়ে ব্যস্ত। আমরা ঢাকাবাসীর উন্নয়ন নিয়ে ব্যস্ত।

তিনি বলেন, বংশাল, কোতয়ালীবাসীর জন্য ৩০ বছরের মহাপরিকল্পনার আওতায় উন্নত ঢাকা গড়ে তুলব। এই এলাকায় যে ঐতিহ্য রয়েছে সেটি সংরক্ষণ করব এবং বিশ্বাসীর কাছে তুলে ধরব। এসময় তিনি নেতাকর্মীদের সুশৃঙ্খলভাবে প্রচারণায় অংশ নিতে আহ্বান জানিয়ে বলেন, নেতাকর্মীরা সুশৃঙ্খলভাবে প্রচার কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করবে। যাতে রাস্তায় কোনো ধরনের যানজট সৃষ্টি না হয়।

ঢাকাটাইমস/২৫জানুয়ারি/টিএ/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

ঢাকা সিটি নির্বাচন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :