যশোরে গণপিটুনিতে এক মাসে নিহত ৬

বেনাপোল প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ২০:৩০

যশোরে চুরি, ছিনতাইয়ের অভিযোগে গণপিটুনিতে মানুষ হত্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। গণপিটুনিতে চলতি মাসেই নিহত হয়েছেন অন্তত ছয় জন। এদেরকে গরু চুরি, ভ্যান চুরি ও মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের অভিযোগে পিটিয়ে মারা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে পাঁচজন অভয়নগর উপজেলায় এবং একজন ঝিকরগাছা উপজেলায় গণপিটুনিতে প্রাণ হারান।

ঘটনার পর আইন হাতে তুলে নেওয়ার বিষয়ে জনগণকে সচেতন করতে জেলার বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং, উঠান বৈঠক, ’ওপেন হাউজ ডে’ এবং ধর্মীয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত ৪ জানুয়ারি রাতে অভয়নগর উপজেলায় সুন্দলী এলাকায় মোটরসাইকেল ছিনতাইকারী সন্দেহে গণপিটুনিতে মামুন রশিদ নামে এক তরুণ নিহত হন। তিনি যশোরের অভয়নগর উপজেলার জিয়াডাঙ্গা গ্রামের আব্দুস সোবাহানের ছেলে। ওই দিন রাতে মণিরামপুর উপজেলার হরিদাশকাটি গ্রামের বিদ্যুৎ মণ্ডল নামে এক ব্যক্তি তিন যাত্রী নিয়ে মোটরসাইকেলে করে অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়ায় যাচ্ছিলেন। সুন্দলী বাজারের পাশে একটি মাছের ঘেরের সামনে পৌঁছালে ওই তিন যাত্রী তার মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেন। বিদ্যুৎ মণ্ডল তাদের একজনকে জাপটে ধরে চিৎকার শুরু করলে সুন্দলী বাজার এবং আশপাশের লোকজন ছুটে এসে মামুন রশিদকে ধরে গণপিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মামুনের মৃত্যু হয়।

১৩ জানুয়ারি ভোর চারটার দিকে অভয়নগর উপজেলার প্রেমবাগ গ্রামের মজুমদারপাড়ার রেলক্রসিংয়ের সামনে গরু চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে তিন ব্যক্তির মৃত্যু হয়। নিহতদের মধ্যে দুই ব্যক্তির পরিচয় জানা গেছে। ওই দুই জন হলেন- সোহেল ও সৈকত। তারা খুলনা নগরীর খানজাহান আলী থানার রেলগেট এলাকার বাসিন্দা।

এর আগে গত ২২ জানুয়ারি মধ্যরাতে ঝিকরগাছা উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামে গরু চোর সন্দেহে ইলিয়াস নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত ইলিয়াস যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।

পুলিশ জানায়, রাত দুইটার দিকে ঝিকরগাছা উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামের ইনছান আলী মোল্লার বাড়ির গোয়ালঘর থেকে তিনটি গরু চুরির ঘটনায় গ্রামবাসী ইলিয়াস ও আবদুলকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। স্থানীয় লোকজন তাদের পিটুনি দিয়ে মাঠে ফেলে রাখে। পরে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন সকালে ইলিয়াস মারা যান।

সর্বশেষ গত ২৪ জানুয়ারি ভোররাতে ভ্যানচোর সন্দেহে যশোরের অভয়নগর উপজেলার শুভরাড়া গ্রামের মাঠপাড়া এলাকায় গণপিটুনিতে ইলিয়াস শেখ নামে একজন ঘটনাস্থলে মারা যান। ইলিয়াস শেখ অভয়নগর উপজেলার শুভরাড়া গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।

যশোর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম জানান, এমন ঘটনা হ্রাসে জেলা পুলিশ প্রশাসন ইতোমধ্যে জনসচেতনামূলক কাজ শুরু করেছে। এসব সচেতনতামূলক কার্যক্রম থেকে নাগরিকদের সন্দেহভাজন কাউকে পিটিয়ে হত্যা না করে নিকটস্থ থানা বা পুলিশ ফাঁড়িতে সোপর্দের আহ্বান জানানো হয়েছে।

ঢাকাটাইমস/২৮জানুয়ারি/পিএল/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :