রোহিতের হাফ সেঞ্চুরিতে ভারতের সংগ্রহ ১৭৯

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১৪:৫৬

সিরিজ জয়ের হাতছানির ম্যাচে ঝোড়ো শুরু করেছিল ভারত। কিন্তু মিডল ওভারে ১৩ বলের মধ্যে হারাতে হয়েছিল তিন উইকেট। সেই ধাক্কা সামলে উঠতে পারল না। পরপর উইকেট হারিয়ে গতি কমল ইনিংসের। ফলে শেষের দিকে প্রত্যাশিত ঝড় উঠল না। পরিণতি, সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ভারত পাঁচ উইকেট হারিয়ে তুলল ১৭৯। জেতার জন্য নিউজিল্যান্ডের প্রয়োজন ১৮০ রান।

বুধবার হ্যামিলটনে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে টস হেরে ব্যাট করতে নামে ভারত। ব্যাটিংয়ে নেমে রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল আক্রমণাত্মক থেকেছিলেন প্রথম ওভার থেকেই। ভারতের পঞ্চাশ এসেছিল ৩৩ বলে। পাওয়ারপ্লে-র প্রথম ছয় ওভারে উঠেছিল ৬৯ রান। হিটম্যান পঞ্চাশে পৌঁছাতে নিয়েছিলেন মাত্র ২৩ বল। এর মধ্যে ষষ্ঠ ওভারে কিউই পেসার হামিশ বেনেট দিয়েছিলেন ২৭ রান। সেই ওভারে রোহিতের ব্যাট থেকেই এসেছিল ২৬ রান। ছয় মেরে হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছিলেন তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওপেনার হিসেবে ১০,০০০ রানও করে ফেলেছিলেন রোহিত। ভারতীয়দের মধ্যে এই কৃতিত্ব রয়েছে সুনীল গাভাস্কার, শচীন টেন্ডুলকার ও বীরেন্দ্র শেবাগের। রোহিত হলেন চতুর্থ ভারতীয়।

কিন্তু তারপরই ম্যাচে ফিরেছিল নিউজিল্যান্ড। পরপর ড্রেসিংরুমে ফিরেছিলেন লোকেশ রাহুল, রোহিত শর্মা ও শিবম দুবে। কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের বলে কাট মারতে গিয়ে পয়েন্টে সহজ ক্যাচ দিয়েছিলেন রাহুল। ১৯ বলে ২৭ রান করে ফিরেছিলেন তিনি। ৮.৬ ওভারে ৮৯ রানে প্রথম উইকেট পড়েছিল ভারতের। দ্বিতীয় উইকেট পড়েছিল ১০.৪ ওভারে, দলীয় ৯৪ রানে। হামিশ বেনেটকে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলেছিলেন রোহিত। ৪০ বলে ছয়টি চার ও তিনটি ছয়ের সাহায্যে ৬৫ করেছিলেন তিনি।

বেনেটের ওই ওভারেই, দু’বল পরে মারতে গিয়ে থার্ডম্যানে ক্যাচ দিয়েছিলেন শিবম দুবে। তিন নম্বরে নিজে না এসে তাঁকে পাঠিয়েছিলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কিন্তু সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারলেন না শিবম (পাঁচ বলে ২)। শ্রেয়াস আইয়ার (১৬ বলে ১৭) ভাল খেলছিলেন, কিন্তু দ্রুত ফিরলেন তিনিও।  বিরাট কোহালি খেলছিলেন ভালই। বড় শট না নিলেও টানছিলেন দলকে। ভারতীয় অধিনায়কদের মধ্যে টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ডও গড়লেন।

কিন্তু, শেষ পর্যন্ত দলকে স্বস্তির জায়গায় পৌঁছে দিতে পারলেন না। চার নম্বরে নেমে ২৭ বলে ৩৮ করে বেনেটের বলে সাউদিকে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন কোহলি। তাঁর ইনিংসে ছিল দুটো চার ও একটা ছয়। কোহলি ফেরার পর মণীশ পাণ্ডে ও রবীন্দ্র জাদেজা দলকে ১৭৯ রানে পৌঁছে দিলেন। ছয় বলে ১৪ রানে অপরাজিত থাকলেন মণীশ।পাঁচ বলে জাদেজা করলেন ১০। দু’জনে অবিচ্ছিন্ন ষষ্ঠ উইকেটে সাত বলে যোগ করলেন ১৯ রান। তিন উইকেট নিয়ে কিউইদের সফলতম বোলার বেনেট। তবে তিনি দিলেন ৫৪ রান।

(ঢাকাটাইমস/২৯ জানুয়ারি/এসইউএল)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :