ট্রাম্পের টুইটের কারণে কাজ করা ‘অসম্ভব’: অ্যাটর্নি জেনারেল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
| আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:২৬ | প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:২৪

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ ও স্টোনের মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ধারাবাহিক টুইটের কারণে ‘কাজ করা অসম্ভব’ বলে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, মার্কিন প্রেসিডেন্টের সাবেক উপদেষ্টা রজার স্টোনের মামলায় দেশটির বিচার বিভাগের ভূমিকা নিয়ে তদন্তের মধ্যেই অ্যাটর্নি জেনারেল ট্রাম্পের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের বিষয়ে তদন্ত করছিল দেশটির গোয়েন্দা বিভাগ। কিন্তু ট্রাম্পের দীর্ঘদিনের বন্ধু স্টোন তদন্তে বাধা দিয়েছিল বলে অভিযোগ ওঠে। তদন্তে বাধা দেওয়ার অভিযোগে স্টোনকে নূন্যতম সাত থেকে নয় বছর কারাবাস করা উচিত বলে সুপারিশ করেছিল দেশটির ফেডারেল প্রসিকিউটর।

এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প এর বিরোধিতা করেছিলেন। তিনি টুইটে লিখেন, ‘এটি একটি ভয়ানক এবং ন্যায়বিচারহীন কর্মকাণ্ড।’

তারপরই দেশটির বিচার বিভাগ নিজস্ব প্রসিকিউশন দলের সাহায্যে ফেডারেল প্রসিকিউটিরদের সুপারিশ বাতিল করে। অভিযোগ ওঠে, ট্রাম্পের পক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল স্টোনের শাস্তির বিষয়ে হস্তক্ষেপ করেছেন। পরে চার প্রসিকিউটর পদত্যাগ করেন।

স্টোনের মামলার বিষয়ে দায়িত্ব গ্রহণ করায় অ্যাটর্নি জেনারেলের প্রশংসাও করেছিলেন ট্রাম্প।

গত সপ্তাহে দেশটির বিচার বিভাগ জানায়, তারা স্টোনের শাস্তির মেয়াদ কমানোর পরিকল্পনা করছে।

তারপরই বিরোধী দলের সদস্যরা অভিযোগ করে, অ্যাটর্নি জেনারেল প্রেসিডেন্টের চাপের কারণে নতজানু। তবে ট্রাম্পের প্রতি বারের ক্ষোভ প্রকাশের ঘটনা নজিরবিহীন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম এবিসি নিউজকে বার বলেন,‘আমি মনে করি, বিচার বিভাগের অপরাধের মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে টুইট বন্ধের সময় হয়েছে। ’

‘‘ধারাবাহিক টুইটে আমাকে খাটো করার কারণে বিচার বিভাগে কাজ করতে পারছি না।’’

বার এবিসিকে বলেন, ‘স্টোনের মামলার দায়িত্ব গ্রহণের জন্য ট্রাম্প কখনো আমাকে কিছু বলেন নি। কিন্তু ট্রাম্পের টুইটের কারণে আমার পক্ষে কাজ করা অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

সিনেটের রিপাবলিকান দলের নেতা মিচ ম্যাককনেলেও বলেন, যদি ট্রাম্পের টুইটের কারণে অ্যাটর্নি জেনারেলের কাজের সমস্যা হয়ে থাকে তাহলে ট্রাম্পের উচিত অ্যাটর্নি জেনারেলের কথা শোনা।

(ঢাকা টাইমস/১৪ফেব্রুয়ারি/আরআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :