‘হুমায়ুন আজাদ স্মরণে উদ্যোগ নেবে বাংলা একাডেমী’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:৩০

বহুমাত্রিক লেখক হুমায়ুন আজাদের স্মরণে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে কিছু একটা করার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী।

বৃহস্পতিবার বিকালে বাংলা একাডেমির বর্ধমান হাউজের তথ্যকেন্দ্রের সামনে হুমায়ুন আজাদ হত্যার বিচারের দাবিতে লেখক-প্রকাশক-পাঠক ফোরাম আয়োজিত স্মরণ সভায় এ কথা জানান মহাপরিচালক।

আয়োজনের শুরুতে সঞ্চালক কবি আসলাম সানীর আমন্ত্রণে মানববন্ধনসহ মেলায় উপস্থিত সবাই হুমায়ুন আজাদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

হুমায়ুন আজাদকে স্মরণ করে কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী জানান তিনি হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলার অন্যতম সাক্ষী। বলেন, ‘রফিক আজাদ আর আমিিএই হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছি পাঁচ-ছয় বছর হয়ে গেল। এখনো মামলার রায় হয়নি। আমি বাংলা একাডেমির পক্ষ থেকে বিচার বিভাগের কাছে অনুরোধ জানাই, আমাদের এভাবে বঞ্চিত করবেন না। হুমায়ুন আজাদের বিচার তার পরিবারের পাশাপাশি আমরাও গত ১৬ বছর ধরে দাবি করে আসছি।’

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক আরও বলেন, ‘একাডেমি প্রাঙ্গণে হুমায়ুন আজাদের স্মরণে কিছু একটা তৈরি করার দাবি এসেছে। এটি অবশ্যই যথার্থ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করবে বাংলা একাডেমি।’

স্মরণসভার সভাপতি ও হুমায়ুন আজাদের বই প্রকাশকারী সংস্থা আগামী প্রকাশনীর কর্ণধার ওসমান গনি বলেন, ‘কাউকে হত্যা করে কারও আদর্শ হত্যা করা যায় না। হুমায়ুন আজাদের বই এতই শক্তিশালী যে তা হত্যা করা সম্ভব নয়। তার হত্যার বিচার চেয়ে দীর্ঘদিন ধরে হুমায়ুন আজাদ দিবস পালন করছি। বিচারক বদলেছে, কিন্তু বিচার হচ্ছে না। আমরা দ্রুত বিচার চাই।'

হুমায়ুন আজাদের মেয়ে মৌলি আজাদ বলেন, ‘এখন মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি রাষ্ট্র পরিচালনা করছে। তাদের কাছে যেন বার্তাটি যায় যে হুমায়ুন আজাদের পরিবার তার হত্যার বিচার চায়। আপনাদের কাছে অনুরোধ, আপনারা আমার আব্বার হত্যার বিচার করুন।’

সংগীতশিল্পী ফকির আলমগীর বলেন, ‘আমরা যারা গণসংগীত শিল্পী আছি, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী আছি, সবার পক্ষ থেকে আমরা এই হত্যার বিচার চাই।’

অন্যপ্রকাশের স্বত্বাধিকারী মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘একজন লেখককে হত্যার চেয়ে জঘন্য কিছু আর হতে পারে না। আমরা অবিলম্বে হুমায়ুন আজাদের হত্যা মামলার রায় ঘোষণার দাবি জানাচ্ছি।’

উপস্থিত ছিলেন কবি পিয়াস মজিদ, কাজী রোজী, হুমায়ুন আজাদের পরিবারের সদস্যরাসহ অনেকে।

(ঢাকাটাইমস /২৭ফেব্রুয়ারি/টিএটি/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :