বিএসএমএমইউয়ের ফিভার ক্লিনিকে এপয়েন্টমেন্ট অনলাইনে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ মে ২০২০, ১৬:৩৯ | প্রকাশিত : ১৭ মে ২০২০, ১৬:৩০

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) পরিচালিত ফিভার ক্লিনিক অনলাইনে এপয়েন্টমেন্ট পদ্ধতির উদ্বোধন করেছেন উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া। এর ফলে কোভিড ১৯ ডায়াগনস্টিক ল্যাবরেটরির সেবার মান রক্ষা করা, রোগীদের দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষার ফলে সৃষ্ট ভোগান্তি কমানো এবং ভিড়ের অবসান হলো।

রবিবার সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিএসএমএমইউয়ের ডা. মিল্টন হলে ফিভার ক্লিনিকের অনলাইন এপয়েন্টমেন্ট পদ্ধতির উদ্বোধন করা হয়।

অনলাইন এপয়েন্টমেন্ট পদ্ধতিতে ব্যবহৃত সফটওয়ারটি উদ্ভাবন করে ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইটি) সেল। অনলাইন অনলাইন এপয়েন্টমেন্ট পদ্ধতির কার্যক্রম আজ রবিবার থেকে শুরু হয়েছে। যেসব রোগী আজকে অনলাইনে এপয়েন্টমেন্ট নিয়েছেন বা নেবেন তারা আগামীকাল সোমবার ফিভার ক্লিনিকে চিকিৎসককের পরামর্শসেবা নিতে পারবেন। করোনাভাইরাস ল্যাবরেটরির সেবাও নিতে পারবেন। রোগীরা বিএসএমএমইউর ওয়েবসাইট-www.bsmmu.edu.bd-তে অনলাইন এপয়েন্টমেন্ট এর জন্যে রেজিস্ট্রেশন ফরমটি পাবেন। প্রতিদিন সকাল আটটা থেকে রোগীরা অনলাইনে তাদের নাম, ঠিকানা, লিঙ্গ, বয়স ও মোবাইল ফোন নম্বর দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশন করার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দিষ্ট মুঠোফোন থেকে ক্ষুদেবার্তার মাধ্যমে সম্ভাব্য সময় উল্লেখ করে এপয়েন্টমেন্ট সাথে সাথে জানিয়ে দেয়া হবে এবং উল্লেখকৃত সময় অনুযায়ী ফিভার ক্লিনিকে এসে পাঠানো ক্ষুদেবার্তাটি দেখিয়ে চিকিৎসাসেবা নিতে পারবেন। ল্যাবরেটরি সেবা নেয়ার ক্ষেত্রেও একই এপয়েন্টমেন্টের ধারাবাহিকতা রক্ষা করা হবে।

কোভিড ১৯ এর বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধের সামনের কাতারের যোদ্ধাদের, অর্থাৎ চিকিৎসকসহ সকল চিকিৎসাসেবা প্রদানকারী স্বাস্থ্যকর্মী, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক ও পুলিশ বাহিনীর সদস্যদেরকে একইভাবে পরবর্তী দিনের জন্যে নির্ধারিত কোটায় রেজিস্ট্রেশন করে এপয়েন্টমেন্ট নিতে হবে। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্যেও একইভাবে রেজিস্ট্রেশন করে এপয়েন্টমেন্ট নিতে হবে। বিশেষ কোটায় এপয়েন্টমেন্ট গ্রহণকারীদের মুঠোফোন নম্বরে বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দিষ্ট মুঠোফোন থেকে পাঠানো ক্ষুদেবার্তায় উল্লেখকৃত সময় অনুযায়ী ফিভার ক্লিনিকে এসে চিকিৎসাসেবা নিতে হবে।

প্রসঙ্গত, বিশেষ কোটায় এপয়েন্টমেন্টপ্রাপ্তদের চিকিৎসাসেবা নেয়ার সময় নিয়োগকর্তা বা যথাযথ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত স্বীকৃত ও গ্রহণযোগ্য পরিচয়পত্র দেখাতে হবে।

প্রতিদিন সকাল আটটা থেকে শুধু পরবর্তী দিনের জন্যে অনলাইনে এপয়েন্টমেন্ট দেয়া হবে। অনলাইনে প্রাপ্ত এপয়েন্টমেন্ট ছাড়া কোনো রোগী সেবা নিতে পারবেন না।

মহতি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিএসএমএমইউর উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) মো. জাহিদ হোসেন, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, ফার্মাকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ও আইটি সেলের ইনচার্জ সায়েদুর রহমান।

(ঢাকাটাইমস/১৭মে/এএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :