সফর স্থগিত হওয়ায় ক্রিকেট ফেরাতে বিসিবির পরিকল্পনা

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:২৭

করোনাভাইরাসে আবদ্ধ বাংলাদেশ ক্রিকেট প্রাণ ফিরে পেতে চলেছিল শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সফর দিয়ে। তবে শুরু থেকেই কোয়ারেন্টাইন পদ্ধতির সীমারেখা নিয়ে দরকষাকষিতে মেতে উঠে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড। ক্রিকেট শ্রীলঙ্কার (এসএলসি) দেওয়া ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শর্তের কাছে হার না মেনে অবশেষে গোটা সিরিজটাই স্থগিত করে দিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তবে সফরকে সামনে রেখেই প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু করা টাইগারদের পরবর্তী কার্যক্রম কি হবে সেটাও জানিয়েছেন বিসিবি বস। জাতীয় দলের স্কিল ক্যাম্প অব্যাহত থাকবে, নিজেদের মধ্যে ভাগ হয়ে খেলবে প্রস্তুতি ম্যাচও। এর বাইরে ক্যাম্প শেষে শুরু হবে ঘরোয়া ক্রিকেট। এইচপি, অনূর্ধ্ব-১৯ ও জাতীয় দল নিয়ে টি-টোয়েন্টি লিগ আয়োজনেও বদ্ধ পরিকর বিসিবি।

শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে ধোঁয়াশা কাটাতে আজ মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হযে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, ‘আমরা খেরা শুরু করছি। আপাতত আমাদের এখন ক্যাম্প তো চলছেই। জাতীয় দলের ক্যাম্প আবার শুরু হচ্ছে। এরপর ওরা তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে।’

‘প্রস্তুতি ম্যাচের পর পরই আমরা ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু করতে যাচ্ছি। ঘরোয়া ক্রিকেটে দুটি ভাগ আছে। একটি হচ্ছে আমরা চিন্তাভাবনা করছি যে পাঁচ-ছয়টি দল নিয়ে প্রথমে খেলার জন্য। ছয়টি দল হলে ৯০ জন খেলোয়াড়। যদি এতজন খেলোয়াড় এসঙ্গে সম্পৃক্ত করা যায়, তাহলে সেটা ভালো হবে। মানে যত বেশি খেলানো যায় তত ভালো। ওদেরকে নিয়ে যদি আমরা একটা টুর্নামেন্ট করতে পারি, এটা কর্পোরেট লিগ হতে পারে বা বিসিবির দল হতে পারে।’

বিসিবি স্পন্সর করে এইচপি, অনূর্ধ্ব-১৯, জাতীয় দল নিয়ে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজন প্রসঙ্গে পাপন যোগ করেন, ‘এমনও হতে পারে আমাদের জাতীয় দল, এইচপি, অনূর্ধ্ব-১৯ ওদেরকে নিয়ে আমরা তিন-চারটি দল বানিয়ে ফেলতে পারি। এদের মধ্যে একটি প্রতিযোগিতা হতে পারে, কিংবা ওদের মধ্যে একটা টুর্নামেন্ট আয়োজন করলাম। যেখানে বিসিবি স্পন্সর থাকবে। এটা খুব সম্ভবত এখন পর্যন্ত যা বুঝতে পারছি টি-টোয়েন্টিই হবে।’

ঘরোয়া ক্রিকেট ফেরানোর ক্ষেত্রে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা বড় ইস্যু উল্লেখ করে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমরা ঘরোয়া ক্রিকেটে লিগের খেলাগুলো চালু করে দিব। এটা আজকেই বলে দিতে পারতাম, তবে এখানেই শেষ না। আমি বলেছি ওদেরকে প্রস্তাব দিতে। খেলা তো শুরু করা যায়, এটা তো সমস্যা না। তবে কিভাবে আমরা এই করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করে ওদেরকে নিরাপদ রেখে আমরা খেলাটি পরিচালনা করতে পারি সেই প্রস্তাবটি দিতে বলেছি। এই নিয়ে কিছু সাজেশনও দেওয়া হয়েছে, ওরা দুযেক দিনের মধ্রেই মনে হয় জানাতে পারে।’

(ঢাকাটাইমস/২৮ সেপ্টেম্বর/এআইএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :