ঢাকা বিভাগে মৃত্যু তিন হাজার ছাড়ালো

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১৬:৪৪
ফাইল ছবি

করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই মৃত্যু হচ্ছে দেশে। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ১৫ জন। আর এই ১৫ জনের মধ্যে ১০ জনেরই মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। বাকি মৃত্যুগুলোর মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগে তিনজন, বরিশালে একজন এবং সিলেটে একজন রয়েছেন। এ পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন পাঁচ হাজার ৮১৮ জন। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগেই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তিন হাজার পাঁচজন।

সোমবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তি বিশ্লেষণে এসব তথ্য জানা যায়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ঢাকা বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর এ পর্যন্ত এই বিভাগটিতে মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার পাঁচ জনের। ফলে এ বিভাগে মৃত্যুর শতকরা হার ৫১.৬৫। ঢাকার পরেই সবোর্চ্চ মৃত্যু চট্টগ্রাম বিভাগে। এখন পর্যন্ত চট্টগ্রাম বিভাগে মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ১৫৭ জন। আর শতকরা হার ১৯.৮৯। এর পরে অবস্থান খুলনা বিভাগের। সেখানে ৪৬৪ জন এবং শতকরা হার ৭.৯৮। তারপর রাজশাহী বিভাগে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৩৭০ জন এবং শতকরা হার ৬.৩৬ শতাংশ। রংপুর বিভাগে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ২৬১ জন এবং শতকরা হার ৪.৪৯ শতাংশ। আর সিলেট বিভাগে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দুই ২৪২ জন এবং শতকরা হার ৪.১৬ শতাংশ। অন্যদিকে বরিশাল বিভাগে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১৯৮ জন এবং শতকরা হার ৩.৪০ শতাংশ। আর সবচেয়ে কম মৃত্যু ময়মনসিংহ বিভাগে। বিভাগটিতে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১২১ জন এবং শতকরা হার ২.০৮ শতাংশ।

অধিদপ্তরের তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ৭৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ৪৩৬ জন। এই সময়ে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৪৯৩ জন। মোট সুস্থতার পরিমাণ তিন লাখ ১৬ হাজার ৬০০ জন।

মারা যাওয়া ১৫ জনের মধ্যে নয়জন পুরুষ এবং ছয়জন নারী। এরমধ্যে ১৪ জন হাসপাতালে এবং একজন বাড়িতে মারা গেছেন।

বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৬০ বছরের ওপরে ১১ জন রয়েছেন।

এছাড়াও দেশে আক্রান্তের সংখ্যা চার লাখ ছাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে এক হাজার ৪৩৬ জনের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার লাখ ২৫১ জনে।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রাদুর্ভাব ঘটে কোভিড-১৯ মহামারির। এরপর এই ভাইরাসটি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে। বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় চলতি বছরের ৮ মার্চ। আর প্রথম মৃত্যুর খবর আসে ১৮ মার্চ।

করোনা নিয়ে আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, সোমবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার কোটি ৩৩ লাখ ২৮ হাজার ৩৪ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১ লাখ ৫৯ হাজার ৯ জন। সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন তিন কোটি ১৯ লাখের বেশি মানুষ।

(ঢাকাটাইমস/২৬অক্টোবর/টিএটি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

করোনাভাইরাস বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :