রাস্তা রেখে বানাতে হবে বাড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ নভেম্বর ২০২০, ২০:০৬

যতটুকু রাস্তা আছে সেই অনুযায়ী বাড়ি নির্মাণ করতে হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, ‘আবাসিক এলাকাগুলোতে রাস্তা রেখেই বাড়ি বানাতে হবে। রাস্তা না থাকলে মানুষকে ঘরে বসে থাকতে হবে।’

রবিবার স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলন কক্ষে ‘বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনা’ (ড্যাপ) নিয়ে বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউট নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

তাজুল ইসলাম বলেন, ‘বাড়ি তৈরি করতে হলে সেগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ রাস্তা প্রয়োজন। যে পরিমাণ রাস্তা আছে সে অনুযায়ী বাড়ি হতে হবে। কারণ ৩০টি বাড়ি হলে সে পরিমাণ রাস্তা থাকতে হবে, সেটিও নিশ্চিত করতে হবে। কারণ রাস্তা না থাকলে মানুষকে তো ঘরে বসে থাকতে হবে। কিন্তু এমন নয় যে আমরা নতুন ভবন করতে দেব না। আমরা আন্ডারপাস, ওভার গ্রাউন্ডের পরিকল্পনা করছি। কিভাবে সেটি করা যায়, সে ব্যাপারে সবার সঙ্গে আলোচনা করে আমরা বাস্তবায়ন করব।’

মানুষের আবাসনের মতো যাতায়াতের জন্য রাস্তার প্রয়োজন- এমন মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, এটার জন্য কি পরিমাণ ভবন আছে, সেখানে আরও বেশি মানুষের আবাসন করা যায় কি না সেটি সবার সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। কিন্তু আমাদের অন্য কোনো দেশের সঙ্গে তুলনা করা ঠিক হবে না।

বাংলাদেশ পৃথিবীর এক নম্বর ঘনবসতিপূর্ণ দেশ তাই সবকিছু মিলিয়ে কারো সঙ্গে তুলনা করা সম্ভব নয় বলে মনে করেন তাজুল ইসলাম।।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা স্পেশাল প্ল্যানের জন্য একমত হয়েছি। আমরা একটি ডাটা ব্যাংক তৈরি করব, তাহলে আমাদের জন্য কাজগুলো সহজ হবে। কিভাবে কাকে সংযুক্ত করতে পারি সেটি নিয়ে সবার সঙ্গে কথা বলব এবং একটি কালেকটিভ বডি তৈরি করব। ঢাকা শহরের হাতিরঝিল থেকে বনানী ও ইউনাইটেড পর্যন্ত ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট চালুর জন্য দুইটি প্রকল্প প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। সেটি একনেকে পাশ হলে দুইপাশে ওয়াকওয়ে করে ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট চালুর জন্য কাজ করব। আমরা ধানমন্ডি লেক নিয়েও কাজ করছি।’

এ সময় রাজউক চেয়ারম্যান মো. সাঈদ নূর আলম, স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) দীপক চক্রবর্তী, স্থপতি ইনস্টিটিউটের সভাপতি জালাল আহমেদ, ফেলো স্থপতি ইকবাল হাবিব, সহ-সভাপতি এহসান খান, সম্পাদক ড. ফরিদা নিলুফার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২২নভেম্বর/বিইউ/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :