‘অভিমানে’ তরুণীর, প্রেমিকার বিয়ের খবরে তরুণের আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর ২০২০, ১৮:৪৫
ফাইল ছবি

সারাদেশে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে এক যুবক ও এক তরুণী আত্মহত্যা করেছে। এদের মধ্যে যুবকের আত্মহত্যা কীটনাশক খেয়ে প্রেমিকার বিয়ের সংবাদে। অন্যদিকে তরুণীর আত্মহত্যা প্রেমিকের সঙ্গে অভিমানে। ঘটনা দুটি ঘটেছে রাজধানীর ওয়ারীতে ও নোয়াখালী জেলায়।

প্রেমিকার বিয়ের খবর পেয়ে কীটনাশক পানে আত্মহত্যাকারী যুবকের নাম রিফাত হোসেন। এই যুবক নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার বজার ইউনিয়নে বাসিন্দা। নিহত রিফাত সালামত উল্যা জমাদার বাড়ির আব্দুল মালেকের ছেলে। সে স্থানীয় একটি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

সোনাইমুড়ী থানার ওসি গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, প্রেমিকার বিয়ে হয়ে যাচ্ছে শুনে রিফাত বিষপান করে আত্মহত্যা করে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে রাজধানীর ওয়ারী থানার স্বামীবাগ এলাকায় প্রেমিকের সঙ্গে অভিমানে করে তানিয়া আক্তার নামের এক তরুণী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে।

তানিয়া আক্তার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া থানার আশরাফ হোসেনের মেয়ে। তিনি বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান ছিলেন।

তানিয়ার মামা ইভান ঢাকাটাইমসকে জানান, সোমবার দিবাগত রাতে প্রেমিক হৃদয়ের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেন তানিয়া। পরে বাসার সবাই ঘুমিয়ে পড়লে সবার অগোচরে শাড়ি দিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেন তিনি।

বিষয়টি টের পেয়ে পরিবারের সদস্যরা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে ভোর ৫টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তানিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তানিয়ার লাশ জরুরি বিভাগের মর্গে রয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে বলেও জানান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির এই পরিদর্শক।

গেল কয়েকদিনে দেশের বিভিন্ন জায়গায় আরও কয়েকটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। এরমধ্যে পারিবারিক কলহের জের ধরে ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে এক কলেজছাত্র আত্মহত্যা করে। রবিবার বিকাল সোয়া ৪টার দিকে উপজেলার পাগলা থানার উস্থি ইউনিয়নের কান্দাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মোহাম্মদ রিয়েল। তিনি ওই গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে। রিয়েল কান্দিপাড়া আব্দুর রহমান ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

অন্যদিকে স্বামী-শাশুড়ির নির্যাতন সইতে না পেরে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় শনিবার রুবি আক্তার নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করে। উপজেলার বরাইদ ইউনিয়নের দক্ষিণ রৌহা গ্রামে তার স্বামীর বাড়িতে গলায় ফাঁস দেয়। রুবি স্থানীয় আগ তাড়াইল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

(ঢাকাটাইমস/২৪নভেম্বর/এনআই/কেআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :