ছেলে-বউ-নাতিকে ফিরে পেয়ে আপ্লুত শওকতুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:২১ | প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:২০

অনেক দিন ছেলে শাওনের মুখে বাবা ডাক শুনিনি। অপেক্ষায় ছিলাম। শাওন বিয়ে করলেও বউকে পর্যন্ত দেখতে পাইনি। কখন ছেলে এবং ছেলের বউকে দেখতে পাবো সেই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলাম। আজ সে অপেক্ষা কাটলো। ওদের ফিরে পেয়ে আমি খুবই আনন্দিত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে র‌্যাব সদরদপ্তরে জঙ্গি আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠান 'নব দিগন্তের পথে' জঙ্গিবাদ ছেড়ে ফিরে আত্মসমর্পণে ছেলে ও ছেলের বউ, নাতিকে ফিরে পেয়ে এভাবেই নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেন বাবা শওকতুর রহমান।

'নব দিগন্তের পথে' স্লোগানে বৃহস্পতিবার র‌্যাব সদরদপ্তরে ৯ জন জঙ্গি সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের কাছে আত্মসমর্পণ করেন।

শওকতুর রহমান বলেন, ‘আমার একটি মেয়ে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স শেষ করেছে এবং আমার ছেলে ওসমানী মেডিকেল থেকে ডাক্তারি শেষ করে বের হয়েছে। সামাজিকভাবে আমার একটা অবস্থান আছে। আমার সকল ছেলে-মেয়ে মেধাবী। কিন্তু হঠাৎ করে আমার ছেলে শাওন পথভ্রষ্ট হয়ে যায়। এটা আমি কখনো বুঝতে পারিনি। আর বর্তমান কর্মকাণ্ড পূর্বের কর্মকাণ্ডের সাথে কোনোভাবে সামঞ্জস্য নয়। শাওন অনেকদিন ঘরছাড়া ছিল, আমি আমার ছেলের মুখ থেকে বাবা ডাক শুনতে পাইনি। আমি সব সময় স্বপ্ন দেখতাম আমার ছেলে এবং আমার বউমার কোলে বাচ্চা আসবে। এর মধ্যে আমি তাদেরকে ফিরে পেয়ে আমি খুবই আনন্দিত। সন্তান বিপথে চলে গেলে বাবা-মা কী কষ্টে থাকে এটা বোঝানো কঠিন। এই অন্ধকার পথ থেকে ছেলেমেয়েদের বাঁচাতে হলে সবার আগে তার বাবা-মাকে এগিয়ে আসতে হবে।’

এই বাবা বলেন, ‘সন্তানরা যাতে জঙ্গিবাদের মতো বিপদে না যায় সেজন্য সব থেকে বেশি বাবা-মাকে সতর্ক এবং সজাগ থাকতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘সহনশীল নতুন প্রজন্ম গড়ে তোলা একান্ত জরুরি। এর মধ্যে যারা বিপথে চলে গেছে তাদেরকে নতুন জীবন শুরু করার সুযোগ তৈরি করে দিতে হবে।’ এজন্য জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে অন্যান্য সংস্থাকেও একসঙ্গে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান তিনি।

শওকতুর রহমান বলেন, ‘আমি সকল বাবা-মার দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই, সবাই সন্তানদের প্রতি আরও যত্নবান হোন, আপনার সন্তানের মতামতের ওপর গুরুত্ব দেন, একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে আমি সবাইকে বলতে চাই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি আমরা সবাই যদি সচেতন হই, তাহলে বাংলাদেশ থেকে জঙ্গিবাদ নির্মূল করা সম্ভব হবে এবং অচিরেই বাংলাদেশ থেকে জঙ্গিবাদ ধ্বংস হয়ে যাবে।’

তিনি র‌্যাবের ইন্টেলিজেন্স শাখার প্রধান, এডিশনাল এসপি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং র‌্যাবের মহাপরিচালক সবাইকে তিনি ধন্যবাদ জানান তার সন্তানকে ফিরিয়ে দেয়ার জন্য।

(ঢাকাটাইমস/১৪জানুয়ারি/এসএস/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :