খালেদার অবস্থা স্থিতিশীল, আগের চিকিৎসাই চলবে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২১, ১১:৫৪ | প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০২১, ১০:৫৩

নতুন করে জ্বর না আসা, কাশিসহ করোনার অন্যান্য উপসর্গও আগের থেকে ভালো বোধ করায় চিকিৎসায় পরিবর্তন আসছে না বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার।

করোনায় আক্রান্ত খালেদা জিয়ার আজ ১৪তম দিন। ১৩তম দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে তার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে খোঁজখবর নেয়ার পর সাংবাদিকদের একথা জানিয়েছেন চিকিৎসক।

বিএনপি চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের সদস্য ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন রাতে বলেন, অন্য দিনের চেয়ে খালেদা জিয়া অনেকটা ভালো অনুভব করছেন বলে আমাদেরকে জানিয়েছেন। এমতাবস্থায় তার যেই চিকিৎসা চলছে সেটাই চলবে। গত ২ দিনেরও বেশি সময় ধরে তার শরীরে কোনো জ্বর নেই।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের বাসভবন ফিরোজায় খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেন চিকিৎসকরা।

এ সময় ডা. জাহিদ বলেন, দেশবাসীর কাছে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া দোয়া চেয়েছেন। পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

খালেদা জিয়ার এই চিকিৎসক বলেন, ম্যাডামের যেই মেডিকেল বোর্ড রয়েছে তারা বসে তার যে বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা রয়েছে, সেগুলো করার সিদ্ধান্ত নিবেন।

এই চিকিৎসক বলেন, আজকে ম্যাডামের ১৩তম দিন শুরু হয়েছে। কাজেই এই যে ১৩ ও ১৪তম দিন এই টাইমটা হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ। ১৪তম দিন বৃহস্পতিবার সকালে শেষ হবে। এ সময় পর্যন্ত তার দিকে আমাদের ভালো করে লক্ষ্য করতে হবে।

ডা. জাহিদ আরও বলেন, খালেদা জিয়ার কাশি, গলা ব্যথা ও অন্যান্য উপসর্গ ছিল অথবা নতুনভাবে হয়নি। কাজেই এই অবস্থায় আমরা বলতে পারি ম্যাডামের চিকিৎসা যেভাবে চলছে তাতে তিনি স্থিতিশীল পর্যায়ে আছেন।

ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রয়েছে। ব্লাড প্রেসার, অক্সিজেন স্যাচুরেশন, ব্লাড সুগার স্বাভাবিক পরিস্থিতি।

এ সময় বেগম খালেদা জিয়ার আরেক চিকিৎসক ডা. মোহাম্মদ আল মামুন এবং চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার ও শায়রুল কবির খান উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকাটাইমস/২১এপ্রিল/বিইউ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিশেষ প্রতিবেদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :