জাতীয় সংসদে হামলা পরিকল্পনা, দুই ‘জঙ্গি’ গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৬ মে ২০২১, ১৯:১৪

জাতীয় সংসদে তলোয়ার নিয়ে হামলার পরিকল্পনায় করছিল উগ্রবাদী জঙ্গিরা। হামলার এমন ‘পরিকল্পনা ও তাতে উসকানি দেওয়ার অভিযোগে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

গ্রেপ্তার দুইজন হলেন- আলী হাসান উসামা এবং মো. আল সাকিব।

বুধবার গ্রেপ্তার করা হলেও বৃহস্পতিবার তাদের গ্রেপ্তারের বিষয়টি গণমাধ্যমকর্মীদের জানানো হয় ডিএমপির পক্ষ থেকে।

দুজনের মধ্যে সাকিবকে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে শেরেবাংলা নগরের জাতীয় সংসদ ভবন এলাকা মানিক মিয়া এভিনিউ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এছাড়া ওইদিন দিবাগত রাত দেড়টার দিকে রাজবাড়ী সদর থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় আলী হাসান উসামাকে।

গ্রেপ্তারের সময় সাকিবের কাছ থেকে একটি কালো পতাকা, মাথায় বাঁধার জন্য একটি কালো রুমাল, বড় একটি ছোড়া, একটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এছাড়া আলী হাসানের কাছ থেকে জব্দ করা হয় একটি ল্যাপটপ, তিনটি মোবাইল ফোন, কিছু উগ্রবাদী বার্তা সম্বলিত বই।

গোয়েন্দা সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত আল সাকিব আনসার আল ইসলামের সক্রিয় সদস্য। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন উগ্রবাদী বার্তা সম্বলিত কতিপয় বক্তার ভিডিওচিত্র দেখে ৩১৩ জন সদস্য সংগ্রহ করে রমজান মাসে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সদস্যর ওপর হামলার পরিকল্পনা করছিল সে। পরিকল্পনা সফলের লক্ষ্যে সে কথিত বক্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে। তাদের দেয়া পরামর্শমতে সাকিব সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে হামলার সদস্য সংগ্রহের জন্য একাধিক পোস্ট ম্যাসেঞ্জার গ্রুপে দাওয়াত দেন।

পরিকল্পনা মোতাবেক গতকাল বুধবার রাত সাড়ে সাতটার দিকে মানিক এভিনিউয়ে জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ওপর নাশকতা সংঘটনের প্রাক্কালে ধারালো অস্ত্রসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার হন সাকিব। সে সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজে পদার্থ বিজ্ঞান অনার্সের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

সূত্রটি আরও জানায়, গ্রেপ্তারকৃত সাকিবের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাজবাড়ী সদর থেকে উগ্রবাদী বক্তা আলী হাসান উসামাকে গ্রেপ্তার করা হয়। হাসান তথাকথিত জিহাদের নামে জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সমর্থনে বিভিন্ন ভিডিও তৈরি করে এবং তা ইউটিউবে প্রচার করে। তিনি সাকিবকে সংসদ ভবনের সামনে হামলার ব্যাপারে ইন্ধন দেয় ও উদ্বুদ্ধ করে। তিনি রাজবাড়ী বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব ছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে ডিএমপির শেরেবাংলানগর থানায় সন্ত্রাস বিরোধী আইনে একটি মামলা হয়েছে।

ঢাকাটাইমস/০৬মে/এএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :