‘মিউচুয়াল ফান্ড আইন সময়োপযোগী করা জরুরি’

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৮ মে ২০২১, ২০:৩৩ | প্রকাশিত : ০৮ মে ২০২১, ২০:৩২

দেশের মিউচুয়াল ফান্ড ইন্ডাস্ট্রির বিকাশে বিদ্যমান মিউচুয়াল ফান্ড আইন ও বিধিমালা সংশোধন করা জরুরি বলে মনে করেন সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান এলআর গ্লোবাল বাংলাদেশ লিমিটেডের চিফ ইনভেস্টমেন্ট অফিসার রিয়াজ ইসলাম। তিনি বলেন, ‘এই আইনের বিভিন্ন ধারার মধ্যে বেশ অস্পষ্টতা আছে, কোথাও কোথাও আছে স্ববিরোধিতা। সংশোধনের মাধ্যমে এটিকে সময়োপযোগী করা না হলে এই ইন্ডাস্ট্রির বিকাশ ব্যাহত হবে।’

শনিবার রাজধানীর বাড্ডায় অ্যামেরিকান চেম্বার অব কমার্সের (অ্যামচেম) সম্মেলনকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে অ্যামচেম প্রেসিডেন্ট সৈয়দ এরশাদ আহমেদ শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন।

সংবাদ সম্মেলনে রিয়াজ ইসলাম বলেন, ‘পুঁজিবাজারের বিকাশ ও স্থিতিশীলতায় মিউচুয়াল ফান্ড খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। এ বাস্তবতায় বিএসইসির বর্তমান কমিশনও মিউচুয়াল ফান্ড ইন্ডাস্ট্রির বিকাশকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছেন। সংশ্লিষ্ট আইনটি সময়োপযোগী করা না হলে তাদের আন্তরিক চেষ্টার পূর্ণাঙ্গ সুফল পাওয়া কঠিন হয়ে পড়বে।’

মিউচুয়াল ফান্ড ইন্ডাস্ট্রির বিকাশে ফিল্যান্সিয়াল লিটারেসি তথা বিনিয়োগকারীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর ওপরও গুরুত্বারোপ করেন তিনি। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ভালো পারফর্ম করা সত্ত্বেও বাজারে অনেক ফান্ডের ইউনিট তার সম্পদ মূল্যের (এনএভি) ৩০/৪০ শতাংশ ডিসকাউন্টে কেনাবেচা হয়। এটি খুবই অস্বাভাবিক। উন্নত বাজারগুলোতে মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটের বাজারমূল্য তার এনএভির চেয়ে ৫ থেকে ১০ শতাংশ কম-বেশি হয়ে থাকে।’

রিয়াজ ইসলাম মিউচুয়াল ফান্ড আইন সংশোধন করে বাই-ব্যাক তথা স্পন্সর বা অ্যাসেট ম্যানেজার কর্তৃক বাজার থেকে ইউনিট কিনে নেয়ার সুযোগ রাখার প্রস্তাব করেন।

তিনি গত ১০ বছরে এলআর গ্লোবাল পরিচালিত মিউচুয়াল ফান্ডগুলোর পারফরম্যান্সের চিত্র তুলে ধরে বলেন, ‘বাজারের বড় উত্থান-পতনের মধ্যেও এলআরের ফান্ডগুলোর পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ছিল। নানা সূচকের আলোকে এলআর গ্লোবাল সেরা পারফরমার।’

এলআর গ্লোবালের চিফ ইনভেস্টমেন্ট অফিসার বলেন, ‘কিছু অনাহুত সমস্যার কারণে গত ৫ বছর এলআর গ্লোবালের কার্যক্রমের গতি কম ছিল। বর্তমান কমিশন দায়িত্ব নেয়ার পর এসব সমস্যার অনেকগুলোর সমাধান হয়ে গেছে। এই কমিশন খুবই আন্তরিক। এলআর গ্লোবাল এই কমিশনের সাথে গঠনমূলকভাবে কাজ করছে।’

রিয়াজ ইসলাম বলেন, ‘মিউচুয়াল ফান্ড আইন সশোধনের মাধ্যমে আরও ইতিবাচক পরিবেশ হলে এলআর গ্লোবাল নতুন কিছু মেয়াদী মিউচুয়াল ফান্ড নিয়ে আসার চেষ্টা করবে। নইলে বে-মেয়াদী ফান্ডের দিকে নজর দেবে। যেভাবেই হোক আগামীতে ফান্ডের সংখ্যা বাড়বে।’

(ঢাকাটাইমস/০৮মে/আরএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :