মিতসুবিশির গাড়ি তৈরি হবে বাংলাদেশে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ মে ২০২১, ২১:১৯

বিশ্বখ্যাত জাপানি ব্রান্ড মিতসুবিশির গাড়ি উৎপাদন হবে বাংলাদেশে। বাংলাদেশে শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন প্রগতি ইন্ডান্ট্রিজ লিমিটেডের মাধ্যমে যৌথভাবে এ গাড়ি উৎপাদন হবে। বাংলাদেশে যৌথভাবে নিজস্ব ব্র্যান্ডের গাড়ি তৈরিতে প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের সঙ্গে ইতোমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে সমঝোতা স্বাক্ষর। বাকি শুধু চূড়ান্ত স্বাক্ষরের আনুষ্ঠানিকতা।

শনিবার এক অনলাইন সভায় এ বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সভায় এ বিষয়ে দিক নির্দেশনা দেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদারসহ মন্ত্রণালয় ও প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজের কর্মকর্তারা। সভায় রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান প্রগতিকে আধুনিকায়ন করার পাশাপাশি মানসম্মত উৎপাদন বাড়াতে মত দেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার। তার সব পরামর্শের সমর্থন দেন মন্ত্রীসহ প্রকল্পসংশ্লিষ্ট নীতি-নির্ধারকরা।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, ‘বিশ্বায়নের যুগে প্রতিটি ক্ষেত্রেই প্রতিযোগিতা বেড়েছে। এ দৌড়ে টিকে থাকতে হলে প্রগতিকে সবার আগে আধুনিক করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিশ্বায়নের যুগে নতুন নতুন শিল্প তৈরি হবে ব্যক্তি ও সরকারের উদ্যোগে। আমাকে টিকে থাকতে হলে সততার মাধ্যমে আমাকে বিশ্বমানের কার উৎপাদন করতে হবে। এটার গুণগত মান যাতে ভালো হয় সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে। দাম যাতে কম হয় সেদিকেও লক্ষ রাখতে হবে। প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকতে হলে মানসম্মত কার উৎপাদন করতে হবে।’

বিশ্বখ্যাত জাপানি ব্রান্ড মিতসুবিশি বাংলাদেশে শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের মাধ্যমে যৌথভাবে গাড়ি উৎপাদন করবে, এটি দেশের জন্য সুখবর জানিয়ে শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘চূড়ান্ত চুক্তির আগেই আমাদের এমনভাবে প্রস্তাব করা দরকার যাবে প্রগতি ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। এ জন্য আমাদের যৌথ স্ট্যাডি করে আলাপ আলোচনা করে পরবর্তী করণীয়গুলো নির্ধারণ করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমদানিকৃত পার্টস ও দেশীয় উৎপাদিত পার্টসের ট্যাক্স একই নির্ধারণ করতে হবে। যাতে করে দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলো টিকে থাকতে পারে। কারণ দেশীয় প্রতিষ্ঠান বিদেশি বাজারের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে টিকে থাকতে পারে না। আর এটার জন্য অবশ্যই দেশীয় প্রতিষ্ঠানের ট্যাক্স কমাতে হবে। আমদানিকৃত গাড়ির ট্যাক্সও বাড়াতে হবে। যাতে মানুষ দেশীয় ও সরকারি শিল্প প্রতিষ্ঠানের গাড়ি কেনে।’

সরকারি প্রতিষ্ঠানে প্রগতির গাড়ি বাধ্যতামূলক করার মত দিয়ে কামাল মজুমদার বলেন, ‘সরকারি প্রতিষ্ঠানকে দেশে উৎপাদিত গাড়ি কিনতে হবে। যেটা মিতসুবিশি আর প্রগতি করবে। যদি বিদেশ থেকে গাড়ি ইমপোর্ট করে তাহলে দেশীয় বাজার টিকবে না। এজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।’

সভায় সভাপতিত্ব করে শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন। তার প্রস্তাবে সায় জানিয়ে তিনি বলেন, ‘দেশকে শিল্পবান্ধব গড়ে তুলতে প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। প্রগতিকে আধুনিকায়ন করার উপর জোর দিতে হবে। সরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রগতিকে সহায়তা করব। এ সময় প্রগতিকে গুরুত্বসহকারে কাজ করতে হবে। কিন্তু মিতসুবিসিকেও শুধু দেশীয় বাজারের দিকে তাকিয়ে থাকলেই হবে না। বিদেশেও রপ্তানির উপর জোর দিতে হবে।’

ঢাকাটাইমস/৮মে/আরকে

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :