সোহরাওয়ার্দীর গাছ কাটা বন্ধে আদালত অবমাননার আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ মে ২০২১, ১৩:১২

হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের গাছ কাটা বন্ধে হাইকোর্টে আদালত অবমাননার একটি আবেদন করা হয়েছে।

রবিবার দুইজন আইনজীবীর পক্ষে আবেদন করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। পাশাপাশি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে রেস্টুরেন্ট বন্ধেরও আবেদন জানানো হয়েছে। গাছ কাটা ও রেস্টুরেন্ট স্থাপনে আলাদা প্রতিবেদন এভিডেভিড আকারে কোর্টে দাখিল করতে বলা হয়েছে।

গাছ কাটা বন্ধে ৬ মে লিগ্যাল নোটিশ পাঠান এই আইনজীবী। জবাব না পাওয়ায় আদালত অবমাননার আবেদনটি করা হয়।

আইনজীবী মনজিল মোরসেদ বলেন, গত বৃহস্পতিবার গাছ কাটা বন্ধে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছিলাম। জবাব পাইনি। এজন্য আদালত অবমাননার আবেদন করেছি। আবেদনে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, গণপূর্ত বিভাগের প্রধান প্রকৌশলীকে বিবাদী করা হয়েছে।

নোটিশে বলা হয়েছে, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা সংরক্ষণের নির্দেশনা চেয়ে ২০০৯ সালে করা এক রিটের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট উদ্যান সংরক্ষণে কয়েক দফা নির্দেশনা দিয়েছিলেন। সে রায়ে বলা হয়েছিল, রমনা ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকা নিছক একটি এলাকা নয়। এই এলাকাটি ঢাকা শহর পত্তনের সময় থেকেই এ পর্যন্ত একটি বিশেষ এলাকা হিসেবে পরিগণিত হয়েছে এবং এর একটি ঐতিহাসিক ও পরিবেশগত ঐতিহ্য আছে। শুধু তাই নয়, আজ পর্যন্ত বাংলাদেশের সকল গণতান্ত্রিক স্বাধীনতা আন্দোলনের কেন্দ্র এই এলাকা। এ প্রেক্ষিতেও সম্পূর্ণ এলাকাটি একটি বিশেষ এলাকা হিসাবে সংরক্ষণের দাবি রাখে। নোটিশে আরও বলা হয়, এখানে এমন কোনো স্থাপনা থাকা উচিত নয়, যা এই এলাকার ইতিহাস-ঐতিহ্যকে বিন্দুমাত্র ম্লান করতে পারে।

পরিবেশগত দিক হতে তা আরও বিধেয় নয়। কারণ রমনার উদ্যান বা রমনা রেসকোর্স ময়দান ঢাকা শহরের দেহে ফুসফুসের ন্যায় অবস্থান করছে। কোনভাবেই এটাকে রোগাক্রান্ত করা যায় না। আদালতের রায় উপেক্ষা করে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মধ্যে ব্যবসায়িক স্বার্থে রেস্টুরেন্ট/দোকান প্রতিষ্ঠার জন্য পরিবেশ ধ্বংস করে অনেক গাছ কেটে ফেলা হয়েছে।

ঢাকাটাইমস/৯মে/এআইএম/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :