ইসরায়েলকে অবশ্যই শিক্ষা দেয়া উচিত: পুতিনকে এরদোয়ান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৩ মে ২০২১, ১০:৫১

ফিলিস্তিনিদের প্রতি সহিংস আচরণের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ইসরায়েলকে একটি শক্তি ও প্রতিরোধমূলক শিক্ষা দেয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফোনালাপে একথা বলেন তিনি।

জেরুজালেমের আল আকসায় ও গাজায় ইসরায়েলের হামলার বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পদক্ষেপ নিতে বুধবার পুতিনকে ফোন করেন এরদোয়ান। তুর্কি প্রেসিডেন্টের যোগাযোগ দপ্তর থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে। খবর আল জাজিরার

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এরদোয়ান ইসরায়েলকে শক্তিশালী ও প্রতিরোধমূলক শিক্ষা দেয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে স্পষ্ট বার্তা দেয়ার ও দ্রুত হস্তক্ষেপের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

গত শুক্রবার থেকে জেরুজালেমের মসজিদ আল আকসায় ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা চালায় ইসরায়েল। পরপর তিন দিন ওই হামলায় সাত শতাধিক ফিলিস্তিনি আহত হন। এরপরই ইসরায়েলকে হামলা বন্ধের জন্য আল্টিমেটাম দেয় গাজার নিয়ন্ত্রক হামাস। আল্টিমেটাম পার হলেই ইসরায়েলে হামলা চালায় হামাস। এরপর ইসরায়েল পাল্টা হামলা শুরু করলে দুই পক্ষের মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

এখন পর্যন্ত ইসরায়েলের হামলায় গাজায় একটি ১৩ তলা ভবন ধসে গিয়েছে। গাজায় নিহত হয়েছেন অন্তত ৫৬ জন। অপরদিকে ইসরায়েলে হামাসের হামলায় ৬ জনের বেশি নিহত হয়েছেন।

খবরে বলা হয়েছে, যুদ্ধবিমান থেকে গাজায় একের পর এক বৃষ্টির মতো বোমা ফেলছে ইসরায়েল। অপরদিকে ইসরায়েলে হাজারের বেশি বোমা ছুড়েছে হামাস। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না এলে পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধ শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

অনেকদিন ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হওয়ার পর গত বছর সম্পর্কোন্নয়নে আগ্রহী হয় তুরস্ক। তবে ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের হামলায় এরদোয়ানের প্রতিক্রিয়া ও বিশ্বব্যাপী ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার উদ্যোগে সেই পথ আবারও বন্ধ হবে বলে ধারণা বিশ্লেষকদের।

ঢাকাটাইমস/১৩মে/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :