তিন শতাধিক ভিক্ষুকের মুখে হাসি ফোটালেন ফরিদপুরের ডিসি

ফরিদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ মে ২০২১, ২১:৫৪

ফরিদপুর শহরের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা অসহায় ভিক্ষুকদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করেছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক অতুল সরকারের নির্দেশনায় শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে ভিক্ষুকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে ঈদ উপহার।

বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত শহরের শেখ ফরিদ দরগাহ জামে মসজিদ প্রাঙ্গণ, আলীপুর গোরস্থান জামে মসজিদ প্রাঙ্গণ, ভাঙ্গা রাস্তার মোড়, রথখোলা, লঞ্চঘাট, চকবাজার জামে মসজিদ প্রাঙ্গণসহ বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে তিন শতাধিক ভিক্ষুকের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দীপক কুমার রায়, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) আশিক আহমেদসহ কর্মকর্তাবৃন্দ।

উপহার সামগ্রী হিসেবে শাড়ি, থ্রি-পিস, লুঙ্গি, সেমাই, চিনি ও দুধ বিতরণ করা হয়।

ঈদ উপহার হাতে পেয়ে খুশি পঙ্গু কাশেম। তিনি বলেন, আমি পঙ্গু মানুষ। চলাফেরা তেমন করতে পারি না। কোন রকমে হেঁটে ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করি। করোনার কারণে খুবই সমস্যার মধ্যে দিয়ে দিন কাটছিল। এরপর আবার ঈদ এসে গেছে। ঈদের দিন একটু সেমাই কিনে খাব, সেই অবস্থাও ছিল না।

কাশেম আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, স্যারেরা আমাকে একটি লুঙ্গি, সেমাই, চিনি, দুধসহ খাবার দিয়েছেন, ঈদের দিনে নতুন লুঙ্গি পরতে পারব। কখনো ভাবিনি এবারের ঈদে নতুন লুঙ্গি পরতে পারব। পোলাপানগো নিয়ে একসাথে সেমাই খেতে পারব।

শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে ভিক্ষাবৃত্তি করেন আয়শা বেগম। তিনিও পেয়েছেন শাড়ি, সেমাইসহ খাদ্যসামগ্রী। আয়শা বেগম বলেন, স্যারেরা প্রতিদিনই ইফতারি দিয়েছেন, আমি অফিসের সামনে গিয়ে প্রতিদিনই ইফতারি এনেছি। আবার ঈদের আগের দিন শাড়ি, সেমাই, চিনি পেলাম। এবারের ঈদটা খুব ভালো কাটাতে পারব।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দীপক কুমার রায় জানান, জেলা প্রশাসক স্যারের নির্দেশনায় শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে তিন শতাধিক অসহায় ভিক্ষুকের হাতে ঈদ উপহার হিসেবে শাড়ি, লুঙ্গি, সেমাই, চিনি, দুধসহ খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

এর আগে রমজান মাসজুড়ে দরিদ্র অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে প্রতিদিনই জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ইফতারসামগ্রী বিতরণের আয়োজন করা হয়।

এছাড়া রমজান মাস শুরু থেকেই পঙ্গু, অসহায়, হতদরিদ্র ছিন্নমূল মানুষের মাঝে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইফতার, ঈদ উপহার হিসেবে শাড়ি, লুঙ্গি ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ শুরু করা হয়।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। মহামারি করোনার অতিসংক্রমণ ও জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে অনেক মানুষকে এক জায়গায় জড়ো না করে জেলা প্রশাসক অতুল সরকারের নির্দেশনায় মানুষের ঘরে ঘরে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পৌঁছে দিয়েছেন জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ।

অপরদিকে জেলা প্রশাসক অতুল সরকারের চিন্তাপ্রসূত মিড দ্য ডিসির অদম্য মেধাবীদের হাতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তুলে দেওয়া হয়েছে ঈদ সম্মাননা।

জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, করোনার সময়ে ছিন্নমূল মানুষগুলো খুব কষ্টে জীবনযাপন করছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চেষ্টা করেছি তাদের পাশে দাঁড়াতে। করোনার কারণে শহরে লোকজন কম আসায় বিশেষ করে ভিক্ষুকরা বেশি বিপাকে পড়েছে।

জেলা প্রশাসক বলেন, ঈদও চলে এসেছে। তাই অন্তত ঈদের দিনটা যাতে তারা ভালোভাবে কাটাতে পারে সেকারণে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে শাড়ি, লুঙ্গি, সেমাই, চিনিসহ খাদ্যসামগ্রী। জেলা প্রশাসন সব সময় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে, ভবিষ্যতেও থাকবে।

(ঢাকাটাইমস/১৩মে/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :