সাক্ষাৎকারে ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূত

আমাদের সংগ্রামের ফলাফল আসবেই

কাজী রফিক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ মে ২০২১, ১০:১১ | প্রকাশিত : ২১ মে ২০২১, ০৯:২৭

বিশ্বের ১২০টি দেশে ফিলিস্তিনের দূতাবাস রয়েছে। এর অনেক দেশই এই খারাপ সময়ের তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। অনেক দেশ ফিলিস্তিনকে সমর্থন করছে। মনোবল ও নিজেদের অস্ত্র দিয়ে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে দেশটি।

এ চলমান সংগ্রামের চূড়ান্ত ফলাফল আসবেই এমন আশা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ নিযুক্ত ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত ইউসূফ এস ওয়াই রামাদান।

বৃহস্পতিবার ঢাকা টাইমসকে দেয়া এক একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন।

ইউসূফ এস ওয়াই রামাদান বলেন, এখন ২৫ জন কমিউনিস্ট আমাদের পক্ষে আওয়াজ তুলেছেন। ইসরাইলের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছেন। সারা বিশ্বের মানুষ জানে ফিলিস্তিন সঠিক। আমরা আশা করি এবং বিশ্বাস করি আল্লাহ তা'আলা আমাদের এসব সমস্যা থেকে চূড়ান্ত মুক্তি দান করবেন।

সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ সরকার এবং এদেশের মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ প্রতিদিন আমাদের দূতাবাসে আসছেন, আর্থিক সহযোগিতা এবং উপহার দিয়ে যাচ্ছেন, বাংলাদেশে ফিলিস্তিনের প্রতিনিধি হিসেবে এটা আমার জন্য সম্মানের। আমার দেশের প্রতি আপনাদের ভালোবাসা অনেক। যার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশের সঠিক বাক্য আমি খুঁজে পাচ্ছি না।

বর্তমানে দেশটিতে যে পরিমাণ ওষুধ প্রয়োজন তার একটি বড় অংশ বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশ থেকে পেয়েছে ফিলিস্তিন। পাশাপাশি দেশটির স্বাস্থ্যবিভাগ এ প্রয়োজনটা পূরণ করছে। তবে ইসরাইলের হামলায় আহতদের জন্য প্রয়োজন অনেক চিকিৎসা সামগ্রী। পাশাপাশি ৪০ হাজারের বেশি মানুষের জন্য আবাসন গড়ে তুলতে হবে বলে জানান ইউসূফ রামাদান।

তিনি বলেন, আহতের জন্য যে ওষুধ প্রয়োজন ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্যবিভাগ তা পূরণ করছে। পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকে আমরা বিপুল পরিমাণ ওষুধ পেয়েছি। এখন আমাদের প্রয়োজন হাসপাতাল সামগ্রী। এবং যে ৪০ হাজার মানুষ তাদের ঘর-বাড়ি হারিয়েছে তাদের আবাসনের ব্যবস্থা করতে হবে।

ইসরাইলের বর্বরতার বিরুদ্ধে বিশ্বের অনেক দেশ কথা বলেছে। কিন্তু ইসরাইল কাউকে তোয়াক্কা করছে না বলে জানিয়েছেন এই রাষ্ট্রদূত।

তিনি বলেন, ইসরাইল আমাদের দেশের নারী শিশুসহ অনেক নাগরিককে হত্যা করেছে। তারা নিয়মিত হামলা চালাচ্ছে। তাদের উদ্দেশ্য ইজরাইলি সমাজ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা। তারা কাউকেই তোয়াক্কা করছে না।

তিনি আরও বলেন, ফিলিস্তিনি মানুষ ইসলামের পক্ষে লড়ছে এবং নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। যা সবাই জানে। কারণ জেরুজালেম শুধু আমরা নয়, সারা বিশ্বের মুসলমানদের। ফিলিস্তিনে একাধিক দল ও মত থাকলেও এখন সকল ফিলিস্তিনি একই পতাকার নিচে রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্র ইসরাইলকে সমর্থন দিচ্ছে। এ বিষয়ে ইউসূফ এস ওয়াই রামাদান বলেন, আমেরিকা ইসরাইলকে সমর্থন দিচ্ছে। তাদের শক্তি ও সামর্থ্য আছে। আমাদের তাদের মত শক্তি সামর্থ্য প্রয়োজন নেই। আমরা যদি তিন মাসের জন্য কোক-পেপসি পান করা বন্ধ করে দেই, এক সপ্তাহের জন্য ইউ এস ডলার ব্যবহার করা বন্ধ করে দেই, মার্কিন পণ্য ব্যবহার বন্ধ করে দেই, আমরা ফলাফল দেখব।

চলমান যুদ্ধে ইসরাইলিদের বিরুদ্ধে লড়তে ফিলিস্তিনের কতটুকু সামর্থ আছে? এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা আমাদের ঘরে তৈরি অস্ত্র দিয়ে যুদ্ধ করি। আমাদের সে সামর্থ্য আছে।

(ঢাকাটাইমস/২১মে/কারই/কেআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাক্ষাৎকার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :