বিশ্বসেরা হয়েই থেমে থাকবে না দেশের পুঁজিবাজার: বিএসইসি চেয়ারম্যান

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৩ জুন ২০২১, ১১:৪৬ | প্রকাশিত : ১৩ জুন ২০২১, ১০:৩৯

করোনা মহামারির সময়েও দেশের পুঁজিবাজার খোলা রেখে প্রশংসায় ভাসছে শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের কমিশন। মে মাসে রিটার্নের দিক দিয়ে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার প্রথম হয়েছে বিশ্বে। এই প্রথম হওয়াতেই দেশের পুঁজিবাজার থেমে থাকবে না বলে জানিয়েছেন পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

তিনি ঢাকাটাইমসকে বলেন, আমাদের লক্ষ্য আরও অনেক দূর। আমরা এখানেই থেমে থাকতে চাই না। আমরা শুধু ইক্যুইটি মার্কেটেই সীমাবদ্ধ থাকতে চাই না। পাশাপাশি বন্ড মার্কেটসহ অন্যান্য মার্কেট নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। এর জন্য বিনিয়োগকারীদের কমিশনের প্রতি আস্থা রাখার আহবান জানান তিনি।

বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, বিনিয়োগকারীদের উচিত হবে জেনেবুঝে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করা। অন্যের কথায় প্ররোচিত হয়ে বিনিয়োগ না করার আহবান জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, যেসব বিনিয়োগকারী ঝুঁকি নিয়ে বিনিয়োগ করতে চান না, তাদের উচিৎ হবে মিউচ্যুয়াল ফান্ড এবং বন্ড মার্কেটে বিনিয়োগ করা। এতে ঝুঁকি খুবই কম।

এ ব্যাপারে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) পরিচালক রকিবুর রহমান ঢাকাটাইমসকে বলেন, বাংলাদেশের পুঁজিবাজার শুধু বিশ্বসেরাই হয়নি। আরও অনেক অর্জন আছে। পাঁচ বছর আগে ভিয়েতনামের মার্কেট ইমেজিং মার্কেট ছিলো । আজকে বাংলাদেশের মার্কেট ইমেজিং মার্কেটে পরিণত হয়েছে।

তিনি বলেন, ইমেজিং মার্কেটে অনেক সুযোগ তৈরি হয় বিনিয়োগের। আর এটাই সময় বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করার।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের ইকোনোমি ভিয়েতনাম থেকে আকারে অনেক ছোট। কিন্তু তা ভিয়েতনাম থেকে অনেক এগিয়ে গেছে। সুতরাং বাংলাদেশের পুঁজিবাজার রিটার্নে বিশ্বসেরা হলেও বাজারটির ভবিষ্যতে রয়েছে অপার সম্ভাবনা।

গত মে মাসে বিশ্বের সেরা সেরা পুঁজিবাজারগুলোকে পেছনে ফেলে ফের সেরা তালিকায় স্থান করে নিয়ে নতুন রেকর্ড গড়লো বাংলাদেশ। রিটার্নের দিক দিয়ে তৃতীয়বারের মতো বাংলাদেশের পুঁজিবাজার বিশ্বের শীর্ষ তালিকায় উঠে এসেছে। সম্প্রতি ফ্রন্টিয়ার জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। এর আগে গতবছর সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে বিশ্বের সেরা স্থান দখল করেছিল বাংলাদেশের পুঁজিবাজার।

এ ব্যপারে বাংলাদেশ সাধারণ বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুর রাজ্জাক ঢাকাটাইমসকে বলেন, নতুন কমিশনের নেতৃত্বে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার ঘুরে দাড়িয়েছে। এতে বিনিয়োগকারীরা তাদের হারানো বিনিয়োগ ফিরে ফেতে সক্ষম হয়েছে। বিনিয়োগকারীদের বেড়েছে পুঁজিবাজারের প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস। তিনি বলেন, এর ফলে বিদেশি বিনিয়োগকারীরাও বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে বিনিয়োগ করছে।

বর্তমান কমিশন আসার পর থেকে পুঁজিবাজারের আইন প্রয়োগে তৎপর ছিল।। যার কারণে বাজার ঘুরে দাড়িয়েছে। এর ফলেই বাংলাদেশের পুঁজিবাজার বিশ্বের সকল দেশকে পেছনে ফেলে রিটার্নে সবার শীর্ষে উঠে এসেছে।

ফ্রন্টিয়ার জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদন বলা হয়, আলোচ্য সময়ে বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশের পুঁজিবাজার থেকে রিটার্ন পেয়েছে ৯ দশমিক ৪ শতাংশ। এছাড়া পাকিস্তান ৮ দশমিক ৫ শতাংশ এবং ভিয়েতনাম ৭ দশমিক ২ শতাংশ, চায়না ৬ দশমিক ৬ শতাংশ, ফিলিপাইনস ৫ দশমিক ৩ শতাংশ, কাজাখস্তান ৪ দশমিক ৭ শতাংশ, শ্রীলঙ্কা ২ দশমিক ৫ শতাংশ, থাইল্যান্ড শূন্য দশমিক ৬ শতাংশ, ইন্দোনেশিয়া শূন্য দশমিক ৩ শতাংশ।

প্রতিবেদন সম্পর্কে বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, কোভিড-১৯ মহামারির মধ্যেও বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফেরানোর মাধ্যমে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ব্রড ইনডেক্স মে মাসে বড় ধরনের উত্থান হয়েছে। ফলে বিশ্বসেরা পারফর্মেন্স সূচকগুলোতে শীর্ষে অবস্থান করছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশে ব্যাংক সুদের হার কম, রপ্তানি ও রেমিট্যান্সে ইতিবাচক ধারার কারণে রিটার্নের দিক দিয়ে সেরা তালিকায় পৌঁছেছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের নেতৃত্বাধীন নতুন কমিশন দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে বাজার ইতিবাচক ধারায় ফিরেছে। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বাজারমুখী হচ্ছেন। ফলে বাজারে সূচক ৬ হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করে রেকর্ড গড়েছিল। আর এমন বাজার থেকে বিনিয়োগকারীরা ভালো রিটার্ন পেয়েছেন। এছাড়া বর্তমান কমিশন বাজারের উন্নয়নে নানা ধরনের উদ্যোগ হাতে নিয়েছে।

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে বহুজাতিক, সরকারি ও দেশি-বিদেশি ভালো মৌলভিত্তিক কোম্পানি তালিকাভুক্তির চেষ্টা করে যাচ্ছে। একইসঙ্গে বাজারে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে কাজ করছে কমিশন। এসব কাজের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের আস্থা ধরে রাখতে পারলে ভবিষ্যতেও সেরা তালিকায় স্থান ধরে রাখতে পারবে বাংলাদেশ।

(ঢাকাটাইমস/১৩জুন/এসআই/কেআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :