বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর হাতে তৈরি হতো কোটি কোটি জাল টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২২ জুন ২০২১, ১৯:৩০ | প্রকাশিত : ২২ জুন ২০২১, ১৯:১৭

রাজধানীর মেরুল বাড্ডার হাজ্বী জয়নব উদ্দিন লেন এলাকায় অভিযান চালিয়ে জাল টাকা তৈরি চক্রের এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। তার নাম নাইমুল হাসান তৌফিক। তিনি রাজধানীর একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। গত তিন বছরে তিনি কোটি টাকারও বেশি বাজারে ছড়িয়েছেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মাহফুজুর রহমান।

র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক মাহফুজুর রহমান বলেন, রাজধানীতে একটি চক্র জাল টাকা তৈরি করে ছড়িয়ে দিচ্ছে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে হাজ্বী জয়নব উদ্দিন লেন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০ লাখ ২৮ হাজার টাকা সমমূল্যের জাল নোট ও জাল টাকা তৈরির সরঞ্জামসহ নাইমুল হাসান তৌফিককে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ সময় তার কাছ থেকে জাল টাকা তৈরির কাজে ব্যবহৃত একটি ল্যাপটপ, একটি প্রিন্টার, একটি মোবাইল ফোন ও নগদ চার হাজার ৮২০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

এই চক্রের কতজন সদস্য আছে এবং তারা কি পরিমাণ টাকা বাজারে ছড়িয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে মাহফুজুর রহমান বলেন, আমরা আরও দুজনের নাম পেয়েছি। তদন্তের স্বার্থে তাদের নাম পরিচয় প্রকাশ করছি না। এই চক্রটি গত তিন বছর ধরে এমন কাজ করছে। তারা এখন পর্যন্ত ১০০ থেকে ১২৫টি চালান বাজারে ছড়িয়েছে। প্রতিটি চালান ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি করতো তারা। এ চক্রটি কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে বিপুল পরিমাণ জাল টাকা উৎপাদন শুরু করেছিলো। গরুর হাটে বড় অঙ্কের লেনদেনকে টার্গেট করে জাল টাকা বাজারে ছড়িয়ে দিতে ইতোমধ্যেই কাজ শুরু করেছিল এ চক্রটি।

মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘নাইমুল হাসান তৌফিক। বয়সে তরুণ হলেও এরই মধ্যে সে একটি চক্রের অন্যতম হোতা। সে একাই একটি বড় ফ্লাট ভাড়া নিয়ে জাল টাকা তৈরির কাজ করতো। দেশের একটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী তৌফিক নিজেও বাজারে টাকা ছড়িয়ে দেয়ার কাজ করেন। জাল টাকা তৈরি একটি চক্রের একটা সময়ে কাজ করলেও এখন নিজেই চক্র তৈরি করেছেন।’

(ঢাকাটাইমস/২২জুন/এআর/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অপরাধ ও দুর্নীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :